মৌসুমের শুরুতে অকাল বৃষ্টিতে ভোলায় আলুসহ শীতকালীন রবি শস্যের ব্যাপক ক্ষতি

0

মৌসুমের শুরুতে অকাল বৃষ্টিতে ভোলায় আলুসহ শীতকালীন রবি শস্যের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। টানা তিনদিনের বৃষ্টিতে বেশির ভাগ আলু ক্ষেত পানিতে তলিয়ে নষ্ট হয়ে গেছে বীজ ও চারা। ফলে এবার আলুর উৎপাদন ব্যাহত হবে। আর লোকসানের আশঙ্কায় দিশেহারা কৃষকরা। বৃষ্টিতে ক্ষতির কথা স্বীকার করে তা কাটাতে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা।

ভোলার মাঠে মাঠে আলুসহ শীতকালীন ফসল বোনায় ব্যস্ত কৃষকরা। কারো কারো আবার ফসল বোনা শেষ। চারা গজিয়ে বেশ বড়ও হয়েছে। লাভের আশা বুক বেধেছেন তারা। কিন্তু অসময়ের বৃষ্টিতে দ্বীপ জেলা ভোলায় সদ্য রোপন করা আলু ক্ষেতের সর্বনাশ ডেকে এনেছে। বৃষ্টির পানি জমে পচে যাচ্ছে বীজ ও চারা।

কয়েক দিনের টানা বর্ষণে ভোলা জেলার ৭ উপজেলার অধিকাংশ ফসলের ক্ষেত পানিতে তলিয়ে যায়। এতে আলু, ডাল,গমসহ শীতকালীন বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। বুলবুলের আঘাত কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই অকাল বর্ষণের এই ছোবলে ফসল হারিয়ে এখন দিশেহারা প্রান্তিক চাষীরা। এই দুর্যোগে কৃষি বিভাগের কাউকে পাশে পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেন কৃষকরা। কৃষি বিভাগের সহযোগিতা না পেলে, কৃষিতে আগ্রহ হারাবে অনেকে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারনেই শীতকালে অসময়ের বৃষ্টি। তাই কৃষকদের আধুনিক কৃষি পদ্ধতিতে চাষাবাদে আগ্রহী করে তুলতে হবে।

টানা বৃষ্টিতে কৃষকদের ক্ষতির বিষয়টি স্বীকার করে কৃষি কর্মকর্তা জানান, ক্ষতি কমাতে কৃষকদের নানা পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি বিকল্প চাষাবাদের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। দ্রুত ক্ষেতের পানি সরালে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হবে না জানিয়ে, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর জানায়, আবার বৃষ্টি হলে আলুসহ অন্য ফসলের ক্ষতি পোষানো যাবে না।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন