খালেদা জিয়ার ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন শেষে উন্নত চিকিৎসার বিষয়ে পদক্ষেপ

0

১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন শেষে খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ও বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডাক্তার এ জেড এম জাহিদ হোসেন। করোনা নিয়ন্ত্রণে এলে, প্রয়োজনে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। বিকেলে ঢাকার ধানমণ্ডির একটি হাসাপাতালে এসএটিভির সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। এদিকে খালেদা জিয়ার সুস্থ হতে আরো সময় লাগবে বলে জানান তার বোন সেলিমা ইসলাম ।

দুই বছরের বেশী সময় দুর্নীতি মামলায় বন্দি থাকার পর গেল ২৫ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দুই শর্তে ছয় মাসের জন্য মুক্তি পান বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। মুক্তির পর রাজধানীর গুলশানের ৭৯ নম্বরের বাসভবন ফিরোজায় কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তিনি।

খালেদা জিয়াকে দেখভালের দায়িত্বে রয়েছে গৃহকর্মী ফাতেমা। সেই সাথে পরিবারের আরো দুই সদস্যকে যুক্ত করেছে মেডিকেল বোর্ড। এছাড়া অন্যদের যাতায়াতে রয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের সুস্থতায় নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকার কথা জানিয়ে খালেদা জিয়ার শারিরীক অবস্থার কথা জানান মেজো বোন সেলিমা ইসলাম।

এই মুহূর্তে খালেদা জিয়াকে হাসাপাতালে ভর্তির কোনো প্রয়োজন নেই উল্লেখ করে সেলিমা ইসলাম জানান, তারেক রহমানের স্ত্রী ডাক্তার জোবায়দা রহমান লন্ডন থেকে মেডিকেল বোর্ডকে নির্দেশনা দিচ্ছেন।

এদিকে, মেডিকেল টিমের সদস্য ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডাক্তার এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, ধানমণ্ডির ল্যাব এইড হাসপাতালে এসএটিভি’র সঙ্গে আলাপকালে খালেদা জিয়ার শারিরীক অবস্থা তুলে ধরেন।

কোয়ারেনটাইনের সময় পার হওয়ার পর খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসা দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন