জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে কিডনি ডাইওলোসিস ইউনিট চালুর দাবি

0

জামালপুর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৪ হাজার রোগী চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে। এছাড়াও ভর্তি থাকে প্রায় ৪শ রোগী। তবে এ হাসপাতালে কিডনি ডাইওলোসিস ইউনিট না থাকায় ভোগান্তিতে পড়তে হয় রোগীদের। বাইরে থেকে এ ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে অনেক অর্থ খরচ করতে হয়। এ হাসপাতালে কিডনি ডাইওলোসিস ইউনিট চালুর দাবি রোগীদের।

জামালপুর জেলায় প্রায় ২৬ লাখ লোকের বসবাস। এতো লোকের চিকিৎসার একমাত্র ভরসা জামালপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল। প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৩ থেকে ৪ হাজার রোগী চিকিৎসা সেবা গ্রহন করে। এখানে কিডনি ডাইওলোসিস ইউনিট না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় রোগীদের। এজন্য শহরের প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি হয়ে মোটা অংকের টাকা গুনতে হয় রোগীদের।

এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন হাসপাতালের এই কর্মকর্তা। শিগগির এই হাসপাতালে কিডনি ডাইওলোসিস ইউনিট চালুর কথা জানালেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী।

হাসপাতালটিতে রোগীদের ভোগান্তি কমাতে কর্তৃপক্ষ অল্পসময়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে, এ প্রত্যাশা জামালপুরবাসীর।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন