পেঁয়াজের অস্থিরতার সাথে দিনাজপুরের চালের বাজারও অস্থির

0

পেঁয়াজের বাজারের অস্থিরতার সাথে এবার দিনাজপুরের চালের বাজারও অস্থির হতে শুরু করেছে। গেল দ’দিনের ব্যবধানে কেজি প্রতি দাম বেড়েছে ৫ টাকা থেকে ৭ টাকা। ধানের সরবরাহ কম হওয়ায় চালের বাজারে এর প্রভাব পড়েছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা। এদিকে, কুষ্টিয়ায় খুচরা বাজারে সব ধরনের চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ থেকে ৬ টাকা। মিল-মালিকদের কারসাজিতে মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে করেন ক্রেতারা।

দেশে চালের চাহিদার একটা বড় অংশ মিটিয়ে থেকে থাকে দিনাজপুর জেলা। সাধারণত এই সময় চালের দাম বৃদ্ধি পায় না। অথচ এবার হঠাৎ করেই গেলো দুই দিনে জেলার ১৩টি উপজেলায় চালের দাম বেড়েছে কেজিকে ৫ থেকে ৭ টাকা। বেকায়দায় পড়েছে সব শ্রেণির ক্রেতারা।

মিল মালিকরা চালের দাম বাড়িয়ে দেওয়ার কারণেই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে বলে দাবি আড়তদারদের।

মিল মালিকরা বলছেন, সরবরাহ কমে যাওয়ায় বেড়েছে ধানের দাম। তাই বেশী দামে চাল বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের।

এদিকে, গেলো ৩১ অক্টোবর থেকে সরকার ধান-চাল ক্রয় করার ঘোষণা দেয়ার পরই অস্থিতিশীল হয়ে উঠে কুষ্টিয়ার ধান ও চালের বাজার। মন প্রতি বেড়েছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা। তবে, দাম বৃদ্ধির পেছনে মিল মালিকদের কারসাজীকেই দায়ী করছেন ক্রেতারা।

খুচরা বিক্রেতাদের দাবি, বাজারে নতুন ধান উঠতে শুরু করলেও এর প্রভাব খুচরা বাজারে পড়েনি।

আর মিল মালিক সমিতির এই নেতার দাবি, চালের দাম বাড়ানোয় মিল মালিকদের কোন কারসাজী নেই।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন