রাজশাহীতে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে বখাটেদের হাতে নারীদের নাজেহাল হওয়ার ঘটনা

0

রাজশাহীতে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে বখাটেদের হাতে নারীদের নাজেহাল হওয়ার ঘটনা। আর ছাত্রীরাই এ হয়রানি শিকার হচ্ছেন বেশি। এ অবস্থায় ইভটিজারদের ধরতে মাঠে ঘুরছে জেলাপ্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত।কেবল তা-ই নয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহারে আইন বর্হিভূত সম্পর্কেও জড়াচ্ছে উঠতি বয়সী শিক্ষার্থীরা। এতেও বাড়ছে কিশোর অপরাধ। এমন তথ্যই দিচ্ছে পুলিশ।

গত ১০ আগস্ট ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়ে নগরীর মনিচত্বর এলাকায় বখাটেদের হাতে যৌন হয়রানির শিকার হন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়-রুয়েটের এক শিক্ষকের স্ত্রী। এর প্রতিবাদ করায় তাকেও বখাটেরা মারধর করে-এমন ঘটনার কথা উল্লেখ করে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ওই শিক্ষক। এনিয়ে তুমুল সমালোচনা শুরু হলে ১৬ আগস্ট মামলা করেন তিনি। ক্লুলেস এই ঘটনা তদন্তে মাঠে নেমে তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

নির্যাতিতরা নিজেদের ফেসবুকে তিক্ত অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেও সামাজিক মর্যাদাহানির আশঙ্কায় ক্যামেরার সামনে কথা বলতে চাননি কেউ-ই। তবে অভিযোগগুলো গুরুত্ব দিয়েই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এদিকে, স্কুল-কলেজ ফাঁকি দিয়ে বহু শিক্ষার্থী ইউনিফর্ম পরে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে গিয়ে সময় কাটাচ্ছে দিব্যি। পুলিশের হিসেবে , এদের বেশির ভাগই প্রাপ্ত বয়স হওয়ার আগেই জড়াচ্ছে আইন বর্হিভূত সম্পর্কে।

তবে এ ধরনের নৈতিক অবক্ষয় ঠেকাতে মাঠে নেমেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত।

ইভটিজিংয়ের অভিযোগে মামলা দায়ের করার প্রবণতা একেবারেই কম। তবে রাজশাহী জেলা পুলিশের তথ্যমতে, গেল একমাসে অপ্রাপ্ত বয়সী ছেলে-মেয়ের মধ্যে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগে মামলা হয়েছে প্রায় ৪০টি। আর এ ধরনের অভিযোগ সামাজিকভাবে মিমাংসার সংখ্যাও কম নয়।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন