রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে এখনো অস্বস্তিতে রয়েছে বিএনপি

0

রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে প্রার্থী নিয়ে এখনো অস্বস্তিতে রয়েছে বিএনপি। স্থানীয় নেতাদের মধ্য থেকে মনোনয়নের দাবি উঠলেও উপেক্ষিত হয়েছে তৃণমূলের চাওয়া। এতে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে দলটির স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে। যদিও প্রার্থী রিটা রহমান নিজের পিপলস পার্টি বিলুপ্ত করে বিএনপিতে যোগ দিয়েই হয়েছেন দলটির প্রার্থী।

১৯৯১সালে ক্ষমতার পালাবদল হলেও রংপুর-৩ আসনে কখনই নির্বাচনী ফলাফল নিজেদের ঘরে নিতে পারেনি বিএনপি। ৫ম সংসদ নির্বাচন থেকে শুরু হয়ে কয়েক দফা নির্বাচনে জামানত হারিয়েছে দলটি। তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামানত হারাতে হয়নি দলটিকে, মহাজোট প্রার্থীর বিপরীতে বেশ ভাল ফল পেয়েছে ২০দলীয় জোট প্রার্থী।

তবে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর শুন্য হওয়া আসনটির উপ-নির্বাচনে বেশ উৎসাহ ছিল দলটিতে। স্থানীয় ও মাঠ পর্যায়ে মনোনয়ের দাবী ছিল তৃণমুলে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০দলীয় জোটের রিটা রহমানকে মনোনয়ন দেয়া হলে ফুঁসে ওঠে দলটির নেতা-কর্মীরা। তবে চলতি উপ-নির্বাচনেও স্থানীয় নেতৃত্বে মনোনয়ন দাবীও উপেক্ষিত থেকে যায়। মান অভিমান ভুলে দলের প্রার্থীর পক্ষেই থাকার কথা জানিয়েছেন নেতা-কর্মীরা। তবে নির্বাচন নিয়ে শংকা প্রকাশ করে বিএনপি প্রার্থী রিটা রহমান জানিয়েছেন, দল নিয়ে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবেন তিনি। আলোচিত সমালোচিত রাজনীতিক মশিউর রহমান যাদু মিয়ার কন্যা রিটা রহমান বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা হত্যা মামলার আসামী খায়রুজ্জামানের স্ত্রী।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন