বোরো ধানের ফলন ভালো হলেও মূল্য কম থাকায় বিপাকে কৃষকরা

0

হবিগঞ্জে এবার বোরো ধানের ফলন ভালো হলেও শ্রমিকের অতিরিক্ত মজুরি আর ধানের মূল্য কম থাকায় বিপাকে পড়েছে কৃষকরা। তবে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বলছে কৃষকদের কাছ থেকে ন্যায্য মূল্যে ধান সংগ্রহ শুরু করেছে সরকার । এদিকে, সার বীজ সহজে মিললেও ধানের ন্যায্য মূল্য নিয়ে শঙ্কায় রয়েছে জামালপুরের কৃষকরা।

এবছর হবিগঞ্জ জেলায় বোরো ধানের চাষাবাদ করা হয়েছে ১ লাখ ২১ হাজার ৫শ হেক্টর জমিতে। ধান উৎপাদনের লক্ষমাত্র ধরা হয়েছে ৭ লাখ ৩২ হাজার ৬শ মেট্রিক টন। যা থেকে চাল উৎপাদন করা যাবে ৪ লাখ ৮৮ হাজার ৪৩০ মেট্রিক টন। তবে প্রতি মন ধান উৎপাদনে ৭’শ থেকে ৭’শ ৫০ টাকা ব্যয় হলেও বর্তমানে তা বিক্রি করতে হচ্ছে ৪’শ থেকে সাড়ে ৪’শ টাকা করে। ফলে একজন শ্রমিকের ৫শ টাকা মুজুরি দিয়ে বোরো ধান চাষাবাদে আগ্রহ হারাচ্ছেন কৃষকরা।

সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করা হলে ধানের বাজার মূল্য স্বাভাবিক হয়ে আসবে বলে জানালেন এই কৃষি কর্মকর্তা । এরিমধ্যে ধানের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার ১ হাজার ৫০ টাকা মন দরে ধান সংগ্রহ শুরু করেছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, চলতি মৌসুমে জামালপুর জেলার ৭ উপজেলায় ১ হাজার ২৯ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। শ্রমিক মুজুরি বেশী হওয়ায় ধানের ন্যায্য দাম না পাবার আশঙ্কায় রয়েছেন কৃষকেরা।

তবে, কৃষি বিভাগের এই কর্মকতা বলছেন ফলন ভালো হওয়ায় কৃষক শেষ পর্যন্ত লাভবানই হবে। কৃষকেরা বোরো ধান বিক্রি করে নায্য দাম পাবে পাশাপাশি অন্য ফসল আবাদ করে আরো লাভবান হতে পারবে এমনটিই প্রত্যাশা সবার।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন