বৈধ ৮০ হাজার রিকসার বিপরীতে কয়েকলাখ অবৈধ রিকসা

0

দীর্ঘ তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে রাজধানীতে রিকসার লাইসেন্স দেয়া বন্ধ রয়েছে। অথচ বৈধ প্রায় ৮০ হাজার রিকসার বিপরীতে বিভিন্ন সংগঠন, সমিতি আর প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় চলছে কয়েকলাখ অবৈধ রিকসা। তবে যানজটের কারণে লাইসেন্স দেয়ার পরিকল্পনা নেই দুই সিটি কর্পোরেশনের। ঢাকার পরিবহন নিয়ে গবেষণায় নিয়োজিত নেদারল্যান্ডের নাগরিক আন্নেমিক প্রিন্সের মতে, যানজটের দোহাই দিয়ে পরিবেশবান্ধব রিকসা নিয়ন্ত্রণ যৌক্তিক নয়।

যানজটের অন্যতম কারণ হিসেবে রিকসাকে দায়ি করে– ১৯৮৬ সালের পর রাজধানীতে বন্ধ করে দেয়া হয় রিকশার নতুন লাইসেন্স। অথচ তিন দশকেরও বেশি সময়ে রাজধানীর জনসংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে পরিবহনের চাহিদাও। আর এই চাহিদার প্রায় ত্রিশ ভাগ পুরণ করে রিকসা।

বর্তমানে রাজধানীর দুই সিটি কর্পোরেশনে বৈধ রিকশার সংখ্যা প্রায় ৮০ হাজার। আর অবৈধ রিকশার নেই কোন সঠিক পরিসংখ্যান। তবে বেসরকারি হিসেবে প্রায় ১০ লাখ অবৈধ রিকশা রয়েছে ঢাকায়। বিভিন্ন, সমিতি, সংগঠন আর নকল নাম্বার প্লেট ও ভুয়া লাইসেন্সে চলছে এসব রিকশা।

পরিবহন চাহিদা পুরণ ও কর্মসংস্থান তৈরিতে বড় ভূমিকা পালন করছে এ বাহনটি। অথচ অবৈধ হওয়ায় পুলিশি হয়রানির পাশাপাশি নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হয় চালকদের।

রাজধানীর পরিবহন ব্যবস্থা– বিশেষ করে রিকশার ওপর গবেষণা করছেন– নেদারল্যান্ডের নাগরিক আন্নেমিক প্রিন্স। পরিবেশবান্ধব এই বাহনটির বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ আরোপে হতাশ তিনি।

এদিকে নতুন লাইসেন্স নয়; যথারীতি অবৈধ রিকশার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার কথাই জানালেন–ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এই কর্মকর্তা।

অবৈধ রিকশা বন্ধে গেল কয়েক দশকে বিভিন্ন অভিযানে কম নয়, উল্টো রিকশার সংখ্যা বেড়েছে কয়েকগুণ।

শেয়ার করুন।