বাহারী ইফতারের পসরা সাজিয়েছেন দোকানীরা

0

তৃতীয় রমজানেও রাজধানীতে বাহারী ইফতারের পসরা সাজিয়েছেন দোকানীরা। বিক্রিও বেশ ভালো হচ্ছে বলে জানান তারা। তবে রজমানের দিন বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিক্রি আরো বড়বে বলে আশা করছেন ব্যবসায়ীরা। এসব ইফতারের দাম ও মান নিয়ে সন্তোষ জানান ক্রেতারা।

রমজান এলেও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকাতে বাহারী ইফতার বিক্রি করেন ব্যবসায়ীরা। জালি কাবাব, সামি কাবাব, কোপ্তা, শাহী জিলাপী, মুরগির রোস্টসহ বিভিন্ন স্বাদের এসব ইফতারের প্রতি ভোজন রসিকদেরও আগহের শেষ নেই।

ক্রেতারা বলেন, ইফতার আয়োজনে বাড়তি হালিম থাকবে, এটা এক ধরনের সংষ্কৃতিতেই পরিণত হয়েছে। তাই বাসায় শাহী হালিমের কদরও একটু বেশি। সর্বনিম্ন ১৪০ থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে হাড়ি হালিম।

ব্যবসায়ীরা জানান, রমজানের শুরুর দিকের চেয়ে শেষদিকে বিক্রি ভালো হয়। কারণ– ঈদের আগে কেনাকাটায় ব্যস্ত থাকায়, বাসায় ইফতারি আয়োজনের সময় কম পান।

তবে গোটা রমজানে খাবারের মান ঠিক রাখতে পর্যবেক্ষণ বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন ক্রেতারা।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন