বন্যায় এক কোটি ২৮ লাখ মানুষ ক্ষয়ক্ষতির শিকার

0

দেশে দু’দফা বন্যায় আটত্রিশ জেলায় এক কোটি ২৮ লাখ মানুষ ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে। আর প্রাণহানি হয়েছে ১৫৭ জনের। রাজধানীতে বন্যা ব্যবস্থাপনা সংলাপে এসব তথ্য তুলে ধরে সিপিডি। সংলাপে পরিবেশবিদ আইনুন নিশাত বন্যা মোকাবিলায় স্থানীয় জনসম্পৃক্ততা বাড়ানোর পরামর্শ দেন। আর পানি সম্পদ মন্ত্রী স্বীকার করেন, বাঁধ নির্মাণসহ বন্যা ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতি হলেও, বন্ধ করা সম্ভব হচ্ছে না।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এবছরের বন্যায় ক্ষয়ক্ষতি ও বন্যা পরবর্তী ব্যবস্থাপনা বিষয়ে এই সংলাপের আয়োজন করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ- সিপিডি। এসময় জানানো হয়, বন্যায় শুধুমাত্র দেশের উত্তরাঞ্চলের ৩২ জেলাতেই ক্ষতির শিকার হয়েছে ৮২ লাখ মানুষ। যেখানে আবারো ঘরবাড়ি তৈরিতে দু’হাজার ছ’শ এবং রাস্তা, কালভার্ট ও বাঁধ নির্মাণে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে দু’হাজার সাত’শ কোটি টাকা।
সিংক: ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, সম্মানিত ফেলো, সিপিডি

অন্যদিকে হাওড় অঞ্চলের চয় জেলায় বন্যায় প্রায় ১৬ লাখ টন বোরো উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যা জাতীয় বোরো উৎপাদনের আট ভাগ। তাই বন্যা ব্যবস্থাপনায় সমন্বিত উদ্যোগ নেয়ার পরামর্শ দেন এই পরিবেশবিদ। এসময় পানিসম্পদ মন্ত্রী জানান, পানি সংরক্ষণ এবং নদীর নাব্যতা ধরে রাখতে শুরু হয়েছে নদী খনন। সংলাপে আরো জানানো হয়, বন্যা ব্যবস্থাপনায় আন্ত:মন্ত্রণালয় সমন্বয় না বাড়ালে বিভিন্ন ছোট সমস্যা, বড় আশঙ্কা তৈরি করতে পারে।

শেয়ার করুন।