প্রশ্নপত্র ফাঁস হলে পরীক্ষা বাতিল: শিক্ষামন্ত্রী

0

প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে নিয়মের কড়াকড়ির মধ্যে সারাদেশে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে শুরু হয়েছে, এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। যাতে ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী এবার অংশ নিচ্ছে। সকাল ১০টায়, প্রথমদিনের পরীক্ষা শুরু হলেও, আধাঘন্টা আগেই নিজ নিজ কেন্দ্রে হাজির হয়ে– আসনে বসে পরীক্ষার্থীরা। প্রথম দিন এসএসসিতে বাংলা প্রথমপত্র, সহজ বাংলা প্রথমপত্র এবং বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংষ্কৃতি বিষয়ের পরীক্ষা হয়েছে। রাজধানীর একটি কেন্দ্রে পরিদর্শন করে– শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানিয়েছেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস হলেই– পরীক্ষা বাতিল করা হবে।

প্রশ্ন ফাঁস হওয়া আটকাতে, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, সকাল ১০টায় প্রথম দিনের পরীক্ষা শুরু হলেও, আধঘন্টা আগে সাড়ে ন’টার মধ্যেই কেন্দ্রে হাজির হয় পরীক্ষার্থীরা।

নিরাপত্তাসহ নানা কড়াকড়ি আরোপের মধ্যে শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়েছে প্রথম দিনের বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষা। কেন্দ্র সচিব ছাড়া অন্য কাউকে মোবাইল বা ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। কেন্দ্র সচিবের অনুমতি ছাড়া পরীক্ষার্থীর বাইরে অন্য কাউকে কেন্দ্রের সীমানাতেও ঢুকতে দেয়া হয়নি।

এবার এসএসসিতে সব বোর্ডের পরীক্ষা হচ্ছে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে। বাংলা দ্বিতীয় পত্র এবং ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র ছাড়া সব বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। তবে প্রশ্নপত্র ফাঁস আতংক, যানজটসহ নানা কারণে শিক্ষার্থীদের কেন্দ্র আনতে ভোগান্তির কথা জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ এবং কারিগরি বোর্ডের অধীনে এসএসসি ভোকেশনালে বাংলা-২ বিষয়ের পরীক্ষা দিলো শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে সরকারি ল্যাবরেটরি বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে পরিদর্শনে যান। এসময় তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস কিংবা তার প্রমাণ হলে পরীক্ষা বাতিল করে দেয়া হবে।

এসএসসি ও সমামানের পরীক্ষায় গতবছর পরীক্ষার্থী ছিলো ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন। আর এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা, ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৯ জন শিক্ষার্থী। সেই হিসেবে এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে দু’লাখ ৪৫ হাজার ২৮৬ জন। আটটি সাধারণ বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি চলবে তত্ত্বীয় পরীক্ষা। সারা দেশে ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে এবারের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষা হচ্ছে। এছাড়া বিদেশের আটটি কেন্দ্রে এবার ৪৫৮জন পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন