পাবনায় ৩৬৭ করাত কলের মধ্যে অনুমোদন নেই ৩৪০টির

0

পাবনায় সামাজিক বন বিভাগের উদাসীনতায় ও অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজসে দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে অবৈধ করাত কল মালিকদের। জেলায় ৩৬৭টি করাত কলের মধ্যে ৩৪০টিরই নেই অনুমোদন। অবৈধ এসব করাত কল গড়ে ওঠায় ধ্বংস হচ্ছে বনজ সম্পদ। অন্যদিকে, প্রতি বছর বিপুল পরিমান রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার।

পাবনায় যত্রতত্র গড়ে উঠছে অবৈধ করাত কল। যার বড় একট অংশের নেই সরকারী অনুমোদন। জেলায় মোট করাত কলের সংখ্যা ৩৬৭টি। এর মধ্যে যথাযথ প্রক্রিয়ায় লাইসেন্সপ্রাপ্ত করাত কলের সংখ্যা মাত্র ২৭টি। অপরদিকে, ৩৪০টি করাত কলেরই অনুমোদন নেই। অনুমোদনহীন অবৈধভাবে পরিচালিত করাত কলের মাধ্যমে বেপরোয়াভাবে চলছে বৃক্ষ নিধন ও কাঠ খড়ির জমজমাট ব্যবসা। ইট ভাটার জ্বালানী হিসেবে অবৈধভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে এই করাত কলের খড়ি কাঠ।

করাত কল মালিকরা বললেন, উপজেলা প্রশাসনকে ‘ম্যানেজ’ করেই তারা করাত কল ব্যবসা চালাচ্ছেন।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অবৈধ করাত কল মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানালেন জেলা প্রশাসক।

করাত কলগুলোকে দ্রুত লাইসেন্সের আওতায় এনে সরকার প্রতি বছর মোটা অংকের রাজস্ব আদায় করবে, এমনই প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন