নারায়ণগঞ্জে এবার এক শিক্ষিকাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

0

শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছিত করার দু’বছরের মাথায়, নারায়ণগঞ্জে এবার এক শিক্ষিকাকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে জেলা জাতীয় পার্টির নেতা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। নাতনীকে প্রাইভেট পড়াতে রাজি না হওয়ায়, শিক্ষিকা শাহীনূর পারভীন শানুকে জুতাপেটা করে এই প্রভাবশালী নেতা। এতে ক্ষুব্ধ, ওই শিক্ষিকার স্বজন ও সহকর্মীরা। এদিকে রাতেই আব্দুল মজিদ খন্দকারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্থানীয় এক আইনজীবীর বাড়িতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন প্যাসিফিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষিকা শাহীনূর পারভীন শানু। জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব ও হাইকোর্টের আইনজীবী আবদুল মজিদ খন্দকার রোববার রাত ১০টার দিকে শানুর কাছে নাতীকে বাসায় গিয়ে পড়ানোর প্রস্তাব দেন।

দীর্ঘ ছ’মাস যাবত কিডনী রোগে অসুস্থতার কারণে তাদের এ প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারেননি ওই শিক্ষিকা। আর এই অপরাধে প্রথমে মৌখিকভাবে হুমকি দেন এবং এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বজনদের সামনেই তাকে মারধর করতে থাকেন আব্দুল মজিদ খন্দকার ও তার স্ত্রী। পরে জুতাপেটাও করেন তিনি।

এ ঘটনায় তার স্বজন ও সহকর্মীরা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আব্দুল মজিদ খন্দকার ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানালেন এই কর্মকর্তা।এক যুগেরও বেশি সময় ধরে এই স্কুলে সুনামের সাথে শিক্ষকতা করছেন শাহীনূর পারভীন শানু। এর আগেও নারায়ণগঞ্জে লাঞ্ছিত হয়েছেন শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত।

শেয়ার করুন।