নতুন পেয়াজ উঠলেও দেশি পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২৫০ টাকা

0

বাজারে নতুন পেয়াজ উঠলেও দেশি পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২৫০ টাকা। আমাদানি করা পেয়াজএকটু কমে বিক্রি হলেও তা সাধারণের নাগালের বাইরে। সরকারের নানা পদক্ষেপ সত্ত্বেও কমছে না পেয়াজের ঝাঁজ। এদিকে দাম বাড়ায় চালের বাজারের অস্থিরতা কাটেনি। আর মৌসুম শেষে দিকে হওয়ায় বেড়েছে ইলিশের দাম ।তবে কমেছে ছোট বড় অন্য মাছের দাম ।

রাজধানীর বাজারে নতুন পেয়াজ উঠলেও দেশী পেয়াজঁ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকায়। তবে আমদানি করা পেয়াজের দাম কিছুটা কম। চীন থেকে আনা পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকা। নতুন পেয়াজ ১৬০ টাকা ও পেয়াজঁ পাতা ৭০ টাকায় কেজিতে বিক্রি হচ্ছে । এক সপ্তাহের ব্যবধানে আগের চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের সবিজ।

মাছের বাজারে মৌসুম শেষের দিকে তাই দাম বেড়েছে ইলিশের। বড় আকারে ইলিশের হালি বিক্রি হচ্ছে আড়াই হাজার থেকে ৪ হাজার টাকায়। 

এ দিকে চালের পাইকারি বাজারে গত ১৫ দিনে সরু মিনিকেট নাজিরশাল এবং মোটা চাল কেজিতে ৫ থেকে ৭ টাকা বাড়তি দামে বিক্রি করছেন মিল মালিকরা । তবে কেজি প্রতি ১ টাকা দাম কমেছে বলে জানালেন চাল ব্যবসায়ীরা ।

মাংসের বাজার স্থিতিশীল থাকলেও ব্রয়লার মুরগী বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১২৫ টাকায় ।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন