তৃতীয় বারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে ওঠেছে ফ্রান্স

0

বেলজিয়ামকে ১-০ গোলে হারিয়ে তৃতীয় বারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনালে ওঠেছে ফ্রান্স। ১৯৯৮ সালে শিরোপা জিতলেও ২০০৬ সালের ফাইনালে ইতালির কাছে হেরে যায় ফরাসীরা। এবারের আসরে নক-আউট পর্ব থেকেই নিজেদের জাত চিনিয়েছে– দিদিয়ের দেশমের দল।

১৯৩০ সাল থেকে বিশ্বকাপ শুরু করলেও ৫ আসরে কোয়ালিফাই করতে পারেনি ফ্রান্স এবং ১ আসরে নিজেদের প্রত্যাহার করেছিল। সব মিলেয়ে নিজেদেরর ১৫ বারের বিশ্বকাপে অংশ নেয়া ফরাসি’দের– ১ বার চ্যাম্পিয়ন ও ১ বার রানার্সআপ হওয়া সেরা অর্জন। ৩ বার সেমিতে, ২ বার কোয়ার্টার , ১ বার ২য় রাউন্ড এবং ৭ বার গ্রুপপর্বে থেকেই বিশ্বকাপ আসর শেষ করে ফ্রান্স।

এবারের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে নিজেদের গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সরাসরি অংশ নেয় দিদিয়ের দেশমের দল। ‘সি’ গ্রুপে দুর্বল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলের কষ্টার্জিত জয়ে শুরু। পরের ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে আবারো ঘাম ঝড়ানো জয়। ব্যবধান ১-০। আর শেষ ম্যাচে ডেনমার্কের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র।

তবে, শেষ ষোলো থেকেই খোলষ ছেড়ে বেড়িয়েছে গ্রিজম্যান-এমবাপেরা। দেখা মেলে আত্ম-বিশ্বাসী এক দলের। যেখানে ফেভারিট আর্জেন্টিনাকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে কোয়র্টার নিশ্চিত করে। আর শেষ আটে উরুগুয়েকে দাপটের সঙ্গে ২-০ গোলে হারিয়ে খেলে সেমিফাইনাল।

আতোয়ান গ্রিজম্যান, কিলিয়ান এমবাপে, অলিভিয়ে জিরুদ। তাঁদের পিছনে পল পগবা, ব্লেইস মাতুইদি। দিদিয়ের দেশমের ফ্রান্স দলের শক্তির জায়গা কোনটি, নামগুলোই তা বলে দিচ্ছে। হারন্দেস ও লরিসদের এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম সেরা আক্রমণ আর মাঝমাঠ থেকে তাঁদের জোগান দেওয়ার জায়গাটাও রীতিমতো ঈর্ষণীয়।

নক আউট পর্বের টানা তিন ম্যাচেই ব্লুজদের আসল নায়ক রক্ষণদুর্গের প্রহরীরা। লিওনেল মেসি-লুইস সুয়ারেসদের পর এডেন হ্যাজার্ড-রোমেলু লুকাকুদের সামলে তো রেখেছেনই, সঙ্গে গোল করার কাজটাও নিয়েছেন নিজেদের কাঁধেই। টানা পাঁচ ম্যাচ খেলেও কোনো গোল পাননি স্ট্রাইকার জিরুদ।

কিন্তু বেনজামিন পাভার্দ, রাফায়েল ভারান আর স্যামুয়েল উমতিতিরা তা বুঝতেই দিচ্ছেন না। পাভার্দ, ভারান ও উমতিতি’রা শুধুই উইং বা সেন্টার ব্যাক কিংবা ডিফেন্ডারই নন শেষ তিন ম্যাচের ত্রাতা।

তরুণ প্রজন্মের ফ্রান্সের কাছে এবারে হাতছানি থাকছে নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয়বার ট্রফিতে চুমু খাওয়ার। এর আগে ১৯৯৮ সালে ঘরের মাঠে প্রথম ও একমাত্র শিরোপা জিতেছিল ফরাসিরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন