টানা বৃষ্টি আর জোয়ারের পানিতে বেহাল দশায় চট্টগ্রামের সড়কগুলো

0

টানা বৃষ্টি আর জোয়ারের পানিতে তলিয়ে বেহাল দশায় চট্টগ্রামের অভ্যন্তরীন সড়কগুলো । আর চট্টগ্রাম ট্রাঙ্ক রোড, আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, অক্সিজেন, কাপ্তাইরোডসহ বেশ কয়েকটি সড়কে বিটুমিনের চিহ্ন পর্যন্ত মুছে গেছে। এতে ক্ষুব্ধ এসব সড়কে চলাচলকরা যাত্রী ও স্থানীয় বাসিন্দারা। আর নগর পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, জোয়ারের পানি শহরে প্রবেশ করায় সহজেই নষ্ট হচ্ছে সড়কগুলো। আর সিটি মেয়র বললেন, আগামী বছরের মে মাসের মধ্যেই সব সড়ক ঠিক হয়ে যাবে।

এটি ঢাকা-চট্টগ্রাম ট্রাঙ্করোড, অনেকে পোর্ট কানের্টিং সড়ক নামেও চেনেন। কারণ এই সড়কটিই দেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড চট্টগ্রাম বন্দরের সঙ্গে যুক্ত করেছে রাজধানী ঢাকাকে। দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ণ এই সড়কটিতে এখন বিটুমিনের চিহ্ন পর্যন্ত মুছে গেছে। ইট, সুরকি উঠে খানা-খন্দে পরিপূর্ণ সড়কের কোথাও কোথাও দেখলে মনে হবে পুকুর।

একই অবস্থা আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, হালিশহর, ইপিজেড এলাকা, কাপ্তাই রাস্তার মাথাসহ নগরীর বেশির ভাগ সড়কের। কিছু দিন আগে কয়েকটি রাস্তার সংস্কার কাজ করা হলেও বর্ষার শুরুতেই জলাবদ্ধতার কবলে পড়ে আবার আগের অবস্থায় ফিরে গেছে।

যেহেতু জোয়ারের পানি শহরে ঢোকা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না সেহেতু বিটুমিনের বদলে বিকল্প সড়ক নির্মাণের পরামর্শ এই নগর পরিকল্পনাবিদের।

গ্যাস, বিদ্যুৎ, ওয়াসাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন কাজ চলায় বেশ কিছু সড়কে সংস্কার কাজ বাধাগ্রস্থ হয়েছে দাবি করে সিটি মেয়র বললেন, আগামী বছরের মে মাসের মধ্যেই সব সড়ক ঠিক হয়ে যাবে।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আওতায় ১১শ’ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। যার মধ্যে প্রায় আড়াইশো কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মৌসুমী বৃষ্টির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের পরিমান দিন দিন বাড়ছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন