চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু টানেলের মাধ্যমে কর্ণফুলীর ওপারে নগরায়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন শুরু

0

বঙ্গবন্ধু টানেলের মাধ্যমে চট্টগ্রামের কর্ণফূলী নদীর ওপারে আনোয়ারা, পটিয়া ও বাঁশখালীর বিস্তীর্ণ এলাকাকে নগরায়নের সঙ্গে যুক্ত করার পরিকল্পনায় কাজ শুরু করেছে সরকার। নতুন এই শহরে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে মাঠে নেমেছে চট্টগ্রাম ওয়াসা। শুধু এই শহরকে টার্গেট করে দৈনিক ৬ কোটি লিটার পানি উৎপাদন সক্ষমতা সম্পন্ন পানি শোধণাগার নির্মাণের কাজ চলছে ভান্ডালঝুড়িতে। যা বাস্তবায়ন হলে আনোয়ারার ইকনোমিকজোনসহ ভারি ইন্ডাস্ট্রি এমনকি আবাসিকেও পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। আর প্রথমবারের মতো বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের নিশ্চয়তা পেয়ে খুশি স্থানীয়রা।

চীনের সাংহাই শহরের আদলে বন্দরনগরী চট্টগ্রামকে ঘিরে ওয়ান সিটি টু টাউন প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। নতুন এই প্রকল্পে নদীর দু’পারেই ঘটবে নগরায়ন। এপারের পুরনো শহর অপরিকল্পীত হলেও, কর্ণফুলীর ওপারে নতুন শহর হবে পরিকল্পিত। আর পরিকল্পিত এই শহরে বিশুদ্ধ পানির সরবরাহ নিশ্চিত করতে উদ্যোগী হয়েছে সরকার। এতে খুশি এলাকাবাসী।

কর্ণফূলীর পাড়ে বোয়ালখালীর ভান্ডালঝুড়ির পাহাড় ঘেরা এলাকায় চলছে ওয়াসার পানি শোধনাগার তৈরীর কাজ। দৈনিক ৬ কোটি লিটার উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন এই শোধনাগারে নদীর পানি পরিশোধনের পর তা পাইপ লাইনে সরবরাহ হবে নতুন শহর ও আনোয়ারা ইকনোমিক জোনে। সেপ্টেম্বর থেকে প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের আগেই তা শেষ করার আশা প্রকল্প পরিচালকের। ১৮০ কিলোমিটার পাইপ লাইনের মাধ্যমে নতুন শহর ও ইকনোমিক জোন ছাড়াও তিন উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় বিশুদ্ধ পানির সরবরাহ নিশ্চিত করার পরিকল্পনা আছে চট্টগ্রাম ওয়াসার। ফুটেজ-৩

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন