গাছকাটাকে কেন্দ্র করে ফের অশান্ত হয়ে উঠছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

0

নতুন আবাসিক হল নির্মানের উদ্দেশে গাছকাটাকে কেন্দ্র করে ফের অশান্ত হয়ে উঠছে দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়। গাছ কাটার এ সিদ্ধান্তকে পরিবেশ বিধ্বংসী বলছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের একাংশ। পরিবেশ রক্ষায় আন্দোলনে নেমেছে তারা। প্রতিদিনই অবস্থান ধর্মঘটসহ নানা প্রতিবাদ কর্মসূচি চলছে ক্যাম্পাসে। এদিকে, ৩ দফা দাবির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে আন্দোলনকারী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের আজকের নির্ধারিত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়নি।

দেশের একমাত্র আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন সমস্যাসহ উন্নয়ন প্রকল্পে একনেকে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে প্রায় ১৪’শ ৪৫ কোটি টাকা।প্রশাসনের সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আবাসন সংকট নিরসনে নতুন হল নির্মানে এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলো।তবে ঐ স্থানগুলোয় গাছ কেটে ফেলায় প্রতিদিনই প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের একাংশ।অভিযোগ উঠেছে, সরকার সমর্থক ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের মাঝে ২ কোটি টাকা বন্টন নিয়েও।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের এ প্রশাসনিক কর্মকর্তার দাবী, বুয়েটের প্রকৌশলীসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের বিশেষজ্ঞ দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই নতুন হল নির্মানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে উপাচার্য অধ্যাপক ডক্টর ফারজানা ইসলাম জানালেন, চলমান উন্নয়ন কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করতেই একটি পক্ষ তৎপর রয়েছে।

আলোচনার মাধ্যমে নিরসন হবে উদ্ভুত সমস্যার,ক্যাম্পাসে ফিরবে স্বাভাবিকবস্থা। এমনটাই প্রত্যাশা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন