১২ সেপ্টেম্বর থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে

0

করোনার কারণে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর ১২ সেপ্টেম্বর থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। দুপুরে চাঁদপুর সদর উপজেলার মহামায়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধনকালে একথা বলেন তিনি। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বেশিরভাগ শিক্ষকই টিকা নিয়েছেন। এছাড়া ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদেরও টিকার আওতায় আনা হবে। নভেম্বরের মাঝামাঝি এসএসসি এবং ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তুতিও চলছে।

করোনা মহামারির কারণে সরকারী নির্দেশে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে টানা দেড় বছর ধরে বন্ধ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সব কিছু খুলে দেয়া হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে সরকার ছিল দ্বিধাদ্বন্দ্বে। যদিও প্রতিবেশী ভারতসহ অন্যসব দেশে অনেক আগেই খুলে দেয়া হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অবশেষে বাংলাদেশেও আর এক সপ্তাহ পরেই খুলতে যাচ্ছে সব স্কুল-কলেজ। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সকালে, চাঁদপুরে মহামায়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন উদ্বোধনকালে এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, শ্রেণিকক্ষে বেঞ্চ সাজাতে হবে ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখে। ৫ ফুটের কম দৈর্ঘ্যের বেঞ্চে একজন শিক্ষার্থী এবং ৫ ফুটের বেশি দৈর্ঘ্যের বেঞ্চে দুজন শিক্ষার্থী স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস করতে পারবে। শ্রেণিকক্ষে সবার জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।

শিক্ষামন্ত্রী আরো জানান, আগের ঘোষণা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ বছরের নভেম্বরে এসএসসি ও ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ইতিপূর্বে দেয়া এসাইনমেন্ট অনুযায়ী পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়ার কথাও জানান তিনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন