হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন আবারো খারিজ

0

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল দেশের সর্বোচ্চ আধুনিক চিকিৎসালয়, এখানেই খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা সম্ভব। পাশাপাশি একজন সাধারণ মানুষ আর দণ্ডিত অপরাধী এক হতে পারে না। এমন পর্যবেক্ষণ দিয়ে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার করা জামিন আবেদন আবারো খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। তবে খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীনের অভিযোগ, বিএসএমএমইউ সরকারের নির্দেশে চলে বলেই এই হাসপাতাল থেকে খালেদার পক্ষে সঠিক কোন প্রতিবেদন পাওয়া অসম্ভব। আলোচনা করেই পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ ঠিক করা হবে বলেও জানান তিনি। এদিকে জামিন আবেদন খারিজের প্রতিবাদে শনিবার ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশের বিভাগীয় শহর ও জেলা সদরে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে দলটি।

বার্ধক্যজনিত একাধিক রোগে ক্রমশ খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনি লণ্ডন যেতে চান, এমন যুক্তি তুলে ধরে হাইকোর্টে ফের জামিন চেয়ে আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। তবে উচ্চ আদালতকে প্রতিবেদন দিয়ে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ জানায়, উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকদের অনুমোতি দিচ্ছেন না বিএনপি চেয়ারপার্সন।

বৃহস্পতিবার নতুন করে খালেদা জিয়ার জামিন শুনানিকে কেন্দ্র হাইকোর্টে জড়ো হন বিএনপি নেতাকর্মীরা। আদালতের সামনেই খালেদার মুক্তি দাবীতে চলে শ্লোগান।

তবে উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে খালেদা জিয়ার আবেদন খারিজ করে দেয় উচ্চ আদালত। রায়ে প্রতিক্রিয়া ভিন্নমত ছিল আইনজীবীদের কণ্ঠে।

নেতিবাচক এই রায়ের নেপথ্যে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষের দেয়া প্রতিবেদনকে দায়ী করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

গেল বছরের ১ এপ্রিল থেকে দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের দণ্ড নিয়ে বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন