স্বাস্থ্যের গাড়িচালক আবদুল মালেকের ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

0

অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের দুই মামলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক ডিজির গাড়িচালক আবদুল মালেক ওরফে বাদলের ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। হেফাজত থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও জালটাকার সন্ধান পেতেই আদালত তাকে রিমাণ্ড দিয়েছে বলে জানিয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। অন্যদিকে আসামীপক্ষ এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিলের সিদ্ধান্তের কথা নিয়েছে। এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আলোচিত গাড়িচালক আবদুল মালেকের চারটি বাড়ি ও তিনটি প্লটের সন্ধান পেয়েছে জানিয়ে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দুদক সচিব দিলাওয়ার বখত।

আপাদমস্তক ধর্মীয় লেবাসে থাকলেও পেশাগত জীবনে অধর্মকে পুঁজি করে সম্পদের পাহাড় গড়ে তোলা মানুষটির নাম আব্দুল মালেক ওরফে বাদল। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক আজাদের এই গাড়ি চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ স্বাস্থ্যখাতের অস্বাস্থ্যকর টেন্ডারবাজীর নেপথ্য দুর্নীতিবাজ ঠিকাদারের অন্যতম সহযোগী ছিলেন মালেক। এছাড়াও নিয়োগ বাণিজ্যের সাথেও সে উৎপ্রত ভাবে জড়িত ছিলেন।

সবশেষ রেবের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর রোববার অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের দুই মামলায় তাকে ১৪ দিনের রিমাণ্ডে পাঠায় ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলামের আদালত।

অন্যদিকে মামলাটি সাজানো দাবী করে এই রিমাণ্ড আদেশের বিরুদ্ধে আপিলের সিদ্ধান্ত জানায় মালেকের আইনজীবী।

দুদকের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে মালেকের প্রথম স্ত্রী নারগিসের নামে তুরাগের দক্ষিনপাড়ায় ৬ কাঠার উপর ৭ তলা ভবন, হাতিরপুলে নির্মাণাধীন ১০ তলা ভবন, মেয়ের নামে দক্ষিণ কামাড়পাড়ায় ১৫ কাঠার উপর ডেইরি ফার্মসহ বিপুল সম্পদের মালিক ড্রাইভার মালেক ও তার স্বজনরা। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মালেকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান দুদক সচিব।

এর আগে মালেক কে দুদফা জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুদক, প্রয়োজনে আবারো তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেও জানান দুদক কর্মকর্তারা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন