স্বাস্থাবিধি মেনে দিন-রাত সেবা দিচ্ছে শীর্ষ স্থানীয় কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিস এস এ পরিবহন

0

অঘোষিত লকডাউন প্রতিকুলতার মধ্যেও গ্রাহকদের জরুরী প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতে স্বাস্থাবিধি মেনে দিন-রাত সেবা দিচ্ছে শীর্ষ স্থানীয় কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিস এস এ পরিবহন। দেশের এই দৃর্যোগ মুহুর্তে গ্রাহকের সঠিক সেবা নিশ্চিত করতে প্রতিষ্ঠানটি আর্থিক লোকসান গুণেও সেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাচেছ । প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী করোনা দুর্যোগে ব্যবসায়ীদের জন্য ব্যাংক ঋনের সুদ মওকুফের তাগিদ দিয়েছেন এসএ পরিবহনের কর্ণধার সালাউদ্দিন আহমেদ।

দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। প্রথম দফায় মন্ত্রিপরিষদ সচিবের ১০দিনের ছুটির ঘোষণায় বন্ধ হয়ে যায় সারাদেশের সকল সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, বিপনী বিতান ।

সিভিল প্রশাসনকে সহায়তায় রাস্তায় নামে সেনাবাহিনী। শুধু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নয়, মানুষের চলাচলেও আরোপ হয় সর্বোচ্চ কড়াকড়ি।

নির্দেশে জরুরী সার্ভিসকে চালুর অনুমতি দেয়া হলেও দেশের প্রায় ৫০টি ছোট বড় কুরিয়ার সার্ভিস আতংকে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখে। এমনকি দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় ডাকঘরও বন্ধ রয়েছে।

দেশের এই দুর্যোগ মুহুর্তে ৩৯ বছরের ঐতিহ্যবাহী সেবাদানকারী এসএ পরিবহন কুরিয়ার ও পার্সেল সার্ভিস দিবা-রাত্রি গ্রাহকের সেবায় নিয়োজিত রয়েছে । শুধু তাই নয় প্রতিষ্ঠানে চাকরীরত দশ হাজার শ্রমীক জীবনের ঝুকি নিয়ে গ্রাহকদের সেবাদানে সারাদেশে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

বিভিন্ন হাসপাতালের জরুরী পন্য, ওষুধপত্র, সরকারি বেসরকারি ত্রাণ ও অতি প্রয়োজনীয় ডাক ডকুমেন্টস নিজস্ব পরিবহন দ্বারা গ্রাহকদের দোরগোরায় পৌছে দিচ্ছে। এসএ পরিবহন এই জাতীয় দায়িত্ববোধ কাঁধে তুলে নেয়ায় গ্রহকরা প্রতিষ্ঠানটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সহযোগিতার দাবি করেছেন।

করোনা দুর্যোগে সারাদেশে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে শতাধিক আউটলেট চালু রাখার বিশাল কর্মযজ্ঞ কিভাবে চলছে, এমন প্রশ্নের জবাব দেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক আথর্িক ক্ষতি মেনেও জনসেবায় সারা দেশে এসএ পরিবহনের একশ’টি শাখা ২৪ঘন্টা সার্ভিস দিচ্ছে। বর্তমানে ১০ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান টিকিয়ে রাখার স্বার্থে দ্রুত ব্যাংক সুদ মওকুফ প্রয়োজন।

সেবার ব্রত নিয়ে প্রতিষ্ঠিত এস এ পরিবহন যেকোন প্রতিকুল পরিস্থিতি, দুর্যোগ বা মহামারীতে জনগণের ভালবাসা আর দোয়া নিয়েই সেবাদান অব্যাহত রেখে এগিয়ে যাবে বলেও জানান সালাহউদ্দিন আহমেদ।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন