সবাইকে সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনে নামতে হবে

0

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ডঃ কামাল হোসেন বলেছেন, স্বাধীনতা ও গনতন্ত্র ভোগ করতে হলে সবাইকে সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনে নামতে হবে। আর ভারতের নাগরিকত্ব আইনকে সমর্থন দিয়ে, সরকার দেশকে পরাধীনতার দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডির কেন্দ্রীয় কাউন্সিলে এসব কথা বলেন তারা। গণতন্ত্র হরনকারীদের বিরুদ্ধে কর্মসূচি দিলে সরকার পরিবর্তন সময়ের ব্যাপার বলেও জানান ঐক্যফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতারা।

জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠা ও গণতান্ত্রিক অধিকার পুনরুদ্ধারে কঠোর অবস্থান তৈরি করতে জাতীয় কাউন্সিলের আয়োজন করে আ স ম আব্দুর রবের জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি।

এতে অংশ নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষস্থানীয় নেতারা, ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদ আর বাংলাদেশের শ্বৈরতন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান। পাশাপাশি ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র ফিরে পেতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ার তাগিদ দেন তারা।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশকে দুর্যোগময় দেশ বানানোর ষড়যন্ত্র চলছে। এনআরসি ভারতের নিজস্ব বিষয় হলেও এতে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলাদেশ।

সরকারের নীল নকশা বাস্তবায়ন করতে অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখারও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

আর সবাইকে অধিকার আদায়ে সোচ্চার হয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে নামার আহবান জানান ঐক্যফ্রন্টের আহবায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

আগামীতে ভোট কারচুপি করলে, শক্ত হাতে প্রতিরোধের হুঁশিয়ারী দেন জেএসডির সভাপতি আসম আব্দুর রব।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন