শারদীয় দুর্গাপূজার মহাসপ্তমী আজ

0

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজার মহাসপ্তমী আজ। সকালে নবপত্রিকায় প্রবেশ ও বিহিত পূজার পর দেবি দুর্গাকে অঞ্জলি দিয়েছেন ভক্তরা। ঢাকের বোল, কাঁসের ঘণ্টা ও শাঁখের ধ্বনিতে মুখর পূজামণ্ডপগুলো। আড়ম্বরহীনতায় মন খারাপ শিশুদের। করোনামুক্তির জন্য বিশেষ প্রার্থনা করা হয় দেবির কাছে। স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখেই সারাদেশে উদযাপিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব।

করোনা ভাইরাসের মহামারি থেকে পৃথিবীকে মুক্তির আকুতি জানিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবের মহাসপ্তমী উদযাপন করছে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। চট্টগ্রামের বিভিন্ন মন্দিরে করোনার কারণে অন্যবারের মতো জাকজমক না হলেও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের কমতি ছিলো না মন্ডপগুলোতে। রামকৃষ্ণ মিশন, কৈবল্যধাম, হাজারীগলি, চট্টশ্বরি কালীবাড়ি, জেমসেনহলসহ নগরীর সবগুলো মন্দিরে মহামারির আতঙ্ক আর দুর্যোগপুর্ণ আবহাওয়া উপেক্ষা করে দেশ ও মানুষের মঙ্গল কামনা করে দেবি দুর্গার কাছে আকুতি জানাতে এসেছিলেন ভক্তরা।

স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ময়মনসিংহে সকালে নগরীর রামকৃষ্ণ মিশন, দুর্গাবাড়ী মন্দিরসহ জেলার মন্দিরগুলোতে উৎসব মুখর পরিবেশে সপ্তমী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

গোপালগঞ্জে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় জেলার এক হাজার ১৯৮টি মন্দিরে বিহীতপূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে গুড়িগুড়ি বৃষ্টির মধ্যেই জেলার ৪৭৫টি মন্দিরে পূজা অনুষ্ঠিত হয়

কুড়িগ্রামে ৪৯৭টি মন্ডপে মহাসপ্তমীতে বিহীত পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানব কল্যাণে সৃষ্টির্তার অনুকম্পা কামনা করেছেন সনাতন ধর্মালম্বীরা।

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে নেত্রকোনায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গাপূজা। সকাল থেকে বৃষ্টি উপেক্ষা করে জেলায় ৪৯৪টি মন্ডপে মহাসপ্তমীর বিহিত পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতক্ষীরা সাত উপজেলায় জেলায় ৫৬৪ পূজা মন্ডপে অনুষ্ঠিত হয়েছে মহাসপ্তমী।

নড়াইল জেলার তিনটি উপজেলার ৫৪৪টি পূজামন্ডপে উদযাপিত হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎব। মহা সপ্তমীতে দেবীকে অঞ্জলি দিয়ে করোনা থেকে মুক্তির জন্য প্রার্থনা করেছে ভক্তরা ।

এবারে দিনাজপুরের ১৩টি উপজেলায় ১২ শত ৫১ মন্ডপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দুর্গাপূজা। মহাসপ্তমীতে ঢাকের বোল ,কাসর ঘন্টা আর শাখের ধ্বনিতে মূখরিত দিনাজপুরের মন্ডপগুলো।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন