রাজশাহী সাধারণ গ্রন্থাগারের নতুন ভবন নির্মাণে কেবল পাইলিংয়েই শেষ

0

রাজশাহী সাধারণ গ্রন্থাগারের নতুন ভবন নির্মাণে কেবল পাইলিংয়েই শেষ হয়েছে প্রকল্পের সব টাকা। মূল ভবন নির্মাণ কাজ শুরুর আগেই পেরিয়ে গেছে প্রকল্পের মেয়াদ। সিটি কর্পোরেশন বলছে, এখন মূল ভবনের নির্মাণ কাজে হাত দিতে আরো দুই কোটি টাকার বেশি প্রয়োজন। কিন্ত টাকা না পাওয়ায় ৬ মাস ধরে কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে শতবর্ষী গ্রন্থাগার ভবনটি সংস্কারের বদলে ভেঙে ফেলায় ক্ষুব্ধ বিশিষ্টজনরা।

স্কটল্যান্ড থেকে প্রকাশিত শেক্সপিয়ার গ্রন্থাবলির প্রথম সংস্করণ, অ্যানুয়াল রেজিস্ট্রার, মাইকেল মধুসূদন দত্তের ‘একেই কি বলে সভ্যতা’ও ‘বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ’র প্রথম সংস্করণ থেকে হালের কয়েক হাজার মূল্যবান বইয়ে সমৃদ্ধ ছিল রাজশাহী সাধারণ গ্রন্থাগার। কেবল গ্রন্থাগারই ছিল না, এ ভবনটিই রাজশাহীতে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের মূল সূতিকাগারও। কিন্তু পুনঃনির্মাণের কথা বলে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে ভবনটি ভেঙে ফেলে সিটি কর্পোরেশন।

ভারত সরকারের আড়াই কোটি টাকা অনুদানে রাজশাহী নগরীর মিয়াপাড়ায় গ্রন্থাগারটির নতুন পাঁচতলা ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে। কিন্তু ভবনের পাইলিংয়ের পরই থমকে গেছে যাবতীয় কাজ।

সিটি কর্পোরেশন বলছে, ফাউন্ডেশনেই প্রকল্পের সব টাকা খরচ হয়ে গেছে । দৃষ্টিনন্দন এ ভবনের নির্মাণ কাজের জন্য নতুন করে অর্থ বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে।

আসছে মার্চ মাসে গ্রন্থাগার কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজ শুরু হতে পারে বলে আশা করছে সিটি কর্পোরেশন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন