দুই বছর এক মাস ১৬ দিন পর মুক্তি পেলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া

0

দুই বছর এক মাস ১৬ দিন কারাগারে বন্দি থাকার পর মুক্তি পেলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। সরকারের নির্বাহী আদেশে ৬ মাসের সাজা স্থগিতের পর, যাবতীয় প্রক্রিয়া শেষে বিকেল সোয়া চারটার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিজন সেল থেকে মুক্তি পান তিনি। মুক্তির খবরে তার পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও বিএনপি মহাসচিবসহ শীর্ষ নেতারা হাসপাতালে ছুটে যান। দুপুর থেকেই দলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মি হাসপাতালেল বাইরে ভিড় জমান। মুক্তির পর খালেদা জিয়া হাসপাতাল থেকে বেরুনোর মুহুর্তে তারা উচ্ছ্বাসে শ্লোগান তুলেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার শারিরীক ও মানবিক দিক বিবেচনা করে, পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে, নির্বাহী আদেশে দুই শর্তে ৬ মাসের জন্য সাজা স্থগিত করা হয়। মঙ্গলবার সরকারের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। সরকারের এই আদেশ বাস্তবায়ন শেষে বিকেল সোয়ার চারটার দিকে, সব আইনি প্রক্রিয়া সম্পর্ণ করে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মুক্তি পান খালেদা জিয়া। ভাই শামীম ইস্কান্দারসহ পরিবারের সদস্যরা এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষ নেতারা মুক্তির আগেই হাসপাতালে পৌছান। দুপুরে হাসপাতালেল সামনে ভিড় করেন দলের নেতাকর্মিরা।

দুই বছর এক মাস ১৬ দিন কারাবন্দি থাকার পর মুক্ত হয়ে খালেদা জিয়া হাসপাতালের বাইরে আসতেই উচ্ছ্বাস ও আনন্দে ফেটে পড়েন বিএনপির নেতাকর্মীরা।শামীম ইস্কান্দারের গাড়িতে চড়ে বোন সেলিমা ইসলামের সঙ্গে গুলশানের পথে গাড়িবহর নিয়ে রওনা দেন খালেদা জিয়া। জিয়া এতিমখানা ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে বন্দি ছিলেন খালেদা জিয়া।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন