মধ্যরাতের মধ্যে কোরবানী পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন, ঢাকার দুই মেয়র

0

মধ্যরাতের মধ্যে কোরবানী পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন, ঢাকার দুই মেয়র। দুপুরে বর্জ্য অপসারণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, কেউ যেন ড্রেনে বর্জ্য না ফেলে। সিটি করোর্পরেশনের নির্দিষ্ট জায়গায় যেন বর্জ্য ফেলা হয়, সেই বিষয়ে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এদিকে, কোরবানী পশুর বর্জ্য সিটি করর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মীদের হাতে তুলে দেয়ার কথা ব্যক্ত করেন দক্ষিণ সিটির মেয়র ব্যারিষ্টার ফজলে নুর তাপস।

দুপুর থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম শুরু হয়। এর আগে সকাল থেকেই মহানগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে কোরাবাণী পশুর আবর্জনা অপসারণ শুরু করেন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা।

সিটি কর্পোরেশনের নির্দিষ্ট স্থান থাকলেও এবারও যত্রতত্র পশু কোরবানী দিয়েছে নগরবাসী। এতে করে অলিতে-গলিতে ব্যাপক পরিমাণ বর্জ্য ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।

পরিচ্ছন্ন কর্মিরা বলেন, সিটি কর্পোরেশন থেকে যাদের বর্জ্য ফেলার ব্যাগ দেয়া হয়েছে, তারা যদি সবাই ওই ব্যাগে আবর্জনা ফেলত তাহলে খুব সহজে তা অপসারণ করা যেত।

এদিকে, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বলছেন, ২৪ ঘন্টার মধ্যে রাজধানীর বর্জ্য অপসারণ করা হবে। যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা না ফেলে নির্দিষ্ট জায়গায় নগরবাসীকে ময়লা ফেলার আহ্বান তারা।

সুস্থ ও সুন্দর নগর গড়ে তুলার লক্ষ্যে সবাইকে সরকারেরর পাশাপাশি একেযোগে কাজ কারার আহ্বান জানান সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন