ভৈরবে ছোট-বড় সরকারি খাল-বিল দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালীরা

0

ভৈরবে সাতমুখী বিল, মনামরা খালসহ ছোট-বড় সরকারি খাল-বিল দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালীরা। এর ফলে পথে বসেছে বিলনির্ভর ৫ শতাধিক জেলে পরিবার। এসব বিল দখলমুক্ত করে খননের দাবি জেলেদের। এতে বাড়বে মাছের উৎপাদন, কমবে দাম।

ভৈরবে মেঘনা ও ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে তৈরি বাদশা বিল, সাতমুখী বিল, মনামরা খালসহ ছোট-বড় সবগুলো সরকারি খাল ও বিল দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালীরা। ড্রেজারের মাধ্যমে বালি ফেলে ভরাট করে সেখানে নির্মাণ করা হয়েছে বহুতল ভবন। বিক্রি হচ্ছে দফায় দফায়। সাতমুখী বিলের ২০ একর জমির পুরোটাই প্রভাবশালীরা দখলের পর নির্মাণ করা হয়েছে ৫ তারকা মানের হোটেল, বিলাশবহুল বহুতল ভবন এবং বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। এদিকে, বিল দখল হওয়ায় শহরে সৃষ্টি হয়েছে মারাত্মক জলাবদ্ধতা। অন্যদিকে নিঃস্ব হয়ে গেছে মৎস্যজীবী ৫ শতাধিক জেলে পরিবার।

ড্রেজার দিয়ে বালি কেটে নিয়ে স্বল্প খরচে বিল ভরাট করায় শহরে সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় নাগরিক দুর্ভোগের কথা জানালেন পৌরমেয়র। প্রশাসন, ১৯৮৮ সালের আগে যেসব ভূমি স্থায়ী বন্দোবস্ত দিয়েছে, সেসব ভূমিতে ভবন নির্মাণের অনুমতি রয়েছে। তবে সোয়া ৩ একর ভূমি এখনো দখলদারদের কবলে থাকায় সেগুলো উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন