করোনায় সাড়ে ৫ মাসে ফিরেছে সোয়া লাখের বেশি প্রবাসী, ফের বিদেশে পাঠানোর জন্য ঋণ দেয়ার পরামর্শ

0

করোনা মহামারিকালে বিদেশ থেকে গত সাড়ে পাঁচ মাসে দেশে ফিরেছেন ১ লাখ ২৭ হাজারেরও বেশি প্রবাসী বাংলাদেশী। তাদেরকে আবারো বিভিন্ন দেশে পাঠানোর উদ্যোগ নিতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়সহ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জোর তৎপরতা জরুরী বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে দেশে ফিরে আসা প্রকৃত কর্মীদের ঋণ সহায়তা জরুরী বলে মনে করেন–জনশক্তি বিশ্লেষক হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। তার মতে, প্রবাসীরা যেমন দেশের জন্য করেছে, এখন রাষ্ট্রের দায়িত্ব তাদের জন্য কিছু করা।

করোনা ভাইরাস মহামারিতে বিদেশের মাটিতে টিকতে না পেরে চলতি বছরের ১ এপ্রিল থেকে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিশ্বের ২৮টি দেশ থেকে বাংলাদেশে ফিরেছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ২০৯ জন প্রবাসী। এর মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকেই সবচেয়ে বেশি ৩৬ হাজার ৫৩৩ জন প্রবাসী ফিরেছেন।

বাংলাদেশে ফিরে আসা প্রবাসীদের বেশিরভাগই কাজ হারিয়েছেন। আবার কারো কারো কাজের মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে। জনশক্তি প্রেরণকারী সংগঠনগুলো কর্তাব্যক্তিরা বলছেন, অনেক দেশে কাজের ক্ষেত্র সংকুচিত হচ্ছে, তাই নতুন কোন দেশে পাঠানোর উদ্যোগ নিতে হবে। অন্যদিকে হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণের মতে, একান্তই না ফেরা প্রবাসীরা যেন মানবেতর জীবন যাপন না করে সেজন্য সরকারী ঋণ জরুরী। তবে তা যেন হয় স্বচ্ছতার ভিত্তিতে। সঠিকভাবে ঋণ দেয়া হলে একেকজন প্রবাসী ৫ থেকে ৭ লাখ টাকা ঋণ পাবেন যাতে, দেশে উদ্যোক্তাও বাড়বে বলেও মনে করেন তিনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন