০২:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

বছরের সবচেয়ে বড় সেল দারাজ ১১.১১-এর উৎসবের আমেজে মেতে ছিলেন বাংলাদেশের ২৯ লক্ষাধিক ক্রেতা

এস. এ টিভি
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৩:৪২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩
  • / ১৭৪৮ বার পড়া হয়েছে
এস. এ টিভি সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষস্থানীয় কমার্স মার্কেটপ্লেস দারাজ ইতিমধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে বছরের সবচেয়ে বড় সেল দারাজ ১১.১১ শুরু করেছে। বিক্রেতা এবংক্রেতা উভয়ের জীবনমান উন্নত করায় অসাধারণ ভূমিকা পালন করে বছরের সেরা এই বিক্রয়োৎসব।

মাত্র ২৪ ঘণ্টায় দারাজের মাধ্যমে ২৯ লক্ষাধিক ক্রেতা যুক্ত হতে পেরেছে ৫৩,০০০ এর বেশী ব্র্যান্ড এবং ছোট মাঝারি উদ্যোক্তাদের সাথে। এটি ডিজিটালঅর্থনীতির ক্রমাগত অগ্রগতির দিকনির্দেশনা দেয়। এরই পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার সর্বাধিক মানুষের কাছে কমার্সের সুবিধাগুলি পৌঁছে দেয়া সুনিশ্চিতকরে।

সর্বোত্তম দাম অফারের মাধ্যমে ক্রেতাদের জন্য একটি উন্নত মানের জীবন নিশ্চিত করা

বর্তমান বিশ্বে অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জএর সাথে সাথে বেড়ে চলেছে জীবনযাত্রার খরচ। এমতাবস্থায়, দারাজ ১১.১১ একটি মূল্যবান সুযোগ যেখানে ক্রেতারাপেয়ে যাচ্ছেন উন্নতমানের ফ্যাশন, বিউটি, হোম ডেকোর এবং আরো অনেক আইটেম। সারা বছরের অপেক্ষার পর পছন্দের জিনিসগুলো কেনার সুযোগপাওয়া যাচ্ছে সবচেয়ে কম দামে, সাথে ৬৩% ক্রেতারা উপভোগ করেছেন ফ্রি ডেলিভারি এর সুবিধা।   

ব্র্যান্ড এবং বিক্রেতাদের ব্যবসা বৃদ্ধির অসাধারণ সুযোগঃ

গত এক বছরে দারাজ নতুন নতুন প্রযুক্তিতে বিশেষভাবে বিনিয়োগ করেছে। এসকল প্রযুক্তি বিক্রেতাদের সাহায্য করে দারাজে তাদের অনলাইন বিক্রয়েগতি বৃদ্ধি করতে ১৪,০০০ এর বেশি ছোট মাঝারি উদ্যোক্তা (এস এম ) দারাজের ১১.১১ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করেছেন প্রথম ২৪ ঘন্টায়।চমৎকার এই সাফল্যকে সামনে রেখে দারাজ বিক্রেতাদের ক্রমাগত আয় বৃদ্ধিতে অবদান রাখতে পারবে বলে আশাবাদী।

দারাজ গ্রুপের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার বিয়ারকে মিকেলসেন এই মাইলফলক সম্পর্কে বলেন, ‘এই চ্যালেঞ্জিং সময়ে আমরা ক্রেতাদের কাছে সম্ভাব্যসর্বোত্তম মূল্য অফার নিশ্চিত করতে চেয়েছি। এটি আমাদের বিক্রেতাগণ পার্টনারদের ছাড়া সম্ভব ছিল না। এছাড়াও দারাজে আরও অনেক নতুনবিক্রেতা যোগ দিচ্ছেন। দারাজকে ভরসা করার জন্য আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। এবারের ১১.১১ ক্রেতাদের অভিভূত সাড়া পেয়ে আমরা অত্যন্তউৎসাহিত। আশা করি আমরা সারা বছর ক্রেতাদের জন্য সেরা পণ্য, সেরা মূল্য এবং সেরা মান নিশ্চিত করার আমাদের প্রতিশ্রুতিকে বজায় রাখতে সক্ষমহব।

দারাজ বাংলাদেশ এর ১১.১১ ক্যাম্পেইনের প্রথম ২৪ ঘন্টার কিছু উল্লেখযোগ্য তথ্যঃ 

●   ফ্যাশনের জনপ্রিয়তা বজায় রেখে প্রথম ২৪ ঘন্টায় ,৬০,০০০এর বেশী ফ্যাশন পোশাক বিক্রি হয়েছে। এর মাঝে বাংলাদেশী নারীদের ঐতিহ্যবাহীপোশাকের সংখ্যাই বেশী। 

দারাজ ১১.১১ সেলে ,৫০,০০০এরও বেশী মোবাইল ফোন, কম্পিউটার এবং ল্যাপ্টপ বিক্রয় হয়েছে যা দেশের লক্ষাধিক মানুষের প্রয়োজন পূরণকরেছে।

●   দৈনন্দিন জীবনযাত্রার সকল পণ্যের একমাত্র গন্তব্যস্থল হওয়ার প্রতিশ্রুতিকে বজায় রেখে দারাজ ,৭৫,০০০এর বেশী গ্রোসারি আইটেম বিক্রিকরেছে। এর মাঝে চাল তেলের মত মৌলিক পণ্য বিক্রি হয়েছে সবচেয়ে বেশী। 


দারাজ ১১.১১ ক্যাম্পেইন হাইলাইটসঃ

ক্রেতাদের কাছে সর্বোত্তম মূল্যে মানসম্পন্ন পণ্যগুলো পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে দারাজ এনেছে আকর্ষণীয় ডিলসমূহ। এর মাধ্যমে ক্রেতারা কেনাকাটা করার সময়অনেক বেশি সাশ্রয় করতে পারেবেন। 

অবিশ্বাস্য ছাড়ঃ গ্রাহকরা ৫০ কোটি টাকা মূল্যমানের ছাড় সহ অতুলনীয় কেনাকাটার অভিজ্ঞতা উপভোগ করতে পারবেন।

অশেষ ডিলসমুহঃ ২০ লক্ষ ডিলের সাথে বছরের ১১.১১ আগের চেয়ে বড় যেখানে রয়েছে সুলভ মূল্যে পণ্য কেনার সুযোগ।

ফ্রি ডেলিভারিঃ অবস্থান নির্বিশেষে, দারাজ এই মেগা উৎসব উদযাপনের জন্য নির্বাচিত পণ্যসমূহে বিনামূল্যে ডেলিভারি অফার করছে।  

ক্যাশব্যাক অফারঃ দারাজ ১৫% পর্যন্ত সঞ্চয় নিশ্চিত করছে অসংখ্য পেমেন্ট পার্টনারদের সাহায্যে যাদের মাঝে আছে বিকাশ, নগদ, ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাকব্যাংক, সিটি ব্যাংক লিমিটেড, দারাজইবিএল কোব্র্যান্ড কার্ড এবং আরও অনেকে। 


১১.১১ আকর্ষণীয় ডিলগুলি ছাড়াও, ক্রেতারা সারা বছর প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে সেরা মানের পণ্য উপভোগ করতে পারে। দারাজে আছে প্রতিদিনেরকম দামের ডিল থেকে শুরু করে আকর্ষণীয় ভাউচার এবং ফ্ল্যাশ সেল যা তার ব্যবহারকারীদের জন্য কেনাকাটাকে সাশ্রয়ী এবং সুবিধাজনক করে তোলে।এই ধরনের উদ্যোগগুলি ক্রেতাদের দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় জিনিসগুলিতে সঞ্চয় করার সুযোগ করে দেয়ার পাশাপাশি অনলাইন কেনাকাটাকে শোভনীয়অভিজ্ঞতায় রূপান্তরিত করে। এর মাধ্যমে তাদের জীবনযাত্রার মান হয় আরও উন্নত। 

দারাজ বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, ‘আমরা আমাদের পার্টনারসমূহ, ক্রেতাগণ এবং অবশ্যই আমাদের টিমের কাছেকৃতজ্ঞ তাদের প্রশংসনীয় সমর্থনের জন্য যা ১১.১১কে বাস্তবায়ন করতে সাহায্য করেছে। মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধির সময়ে, আমাদের বছরের লক্ষ্য ছিলক্রেতাদের সঞ্চয় সর্বাধিক করতে সাহায্য করা এবং বিক্রেতা উদ্যোক্তাদের জন্য নতুন আয়ের সুযোগ তৈরি করা।

আমরা চেয়েছি জীবনযাত্রার ক্রমবর্ধমান ব্যয় মোকাবেলা করায় তাদের সাহায্য করতে। আমরা সামনের দিনগুলিতে আমাদের ক্রেতাদের আরও বেশি সঞ্চয়এবং বৈচিত্র্যের মাধ্যমে সেরা কেনাকাটার অভিজ্ঞতা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এরই সাথে আরও বেশি বিক্রেতাদের তাদের ব্যবসায়িক বিকাশে সহায়তা করতেপ্রস্তুত।

১১.১১, বছরের সবচেয়ে বড় সেল, চলছে ১১ থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত। এখুনি ঘুরে আসুন দারাজে এবং উপভোগ করুন অবিশ্বাস্য ডিল এবং অফার। 

এস. এ টিভি সমন্ধে

SATV (South Asian Television) is a privately owned ‘infotainment’ television channel in Bangladesh. It is the first ever station in Bangladesh using both HD and 3G Technology. The channel is owned by SA Group, one of the largest transportation and real estate groups of the country. SATV is the first channel to bring ‘Idol’ franchise in Bangladesh through Bangladeshi Idol.

যোগাযোগ

বাড়ী ৪৭, রাস্তা ১১৬,
গুলশান-১, ঢাকা-১২১২,
বাংলাদেশ।
ফোন: +৮৮ ০২ ৯৮৯৪৫০০
ফ্যাক্স: +৮৮ ০২ ৯৮৯৫২৩৪
ই-মেইল: info@satv.tv
ওয়েবসাইট: www.satv.tv

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত ২০১৩-২০২৩। বাড়ী ৪৭, রাস্তা ১১৬, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ। ফোন: +৮৮ ০২ ৯৮৯৪৫০০, ফ্যাক্স: +৮৮ ০২ ৯৮৯৫২৩৪

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বছরের সবচেয়ে বড় সেল দারাজ ১১.১১-এর উৎসবের আমেজে মেতে ছিলেন বাংলাদেশের ২৯ লক্ষাধিক ক্রেতা

আপডেট সময় : ০৩:৩৩:৪২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

দক্ষিণ এশিয়ার শীর্ষস্থানীয় কমার্স মার্কেটপ্লেস দারাজ ইতিমধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে বছরের সবচেয়ে বড় সেল দারাজ ১১.১১ শুরু করেছে। বিক্রেতা এবংক্রেতা উভয়ের জীবনমান উন্নত করায় অসাধারণ ভূমিকা পালন করে বছরের সেরা এই বিক্রয়োৎসব।

মাত্র ২৪ ঘণ্টায় দারাজের মাধ্যমে ২৯ লক্ষাধিক ক্রেতা যুক্ত হতে পেরেছে ৫৩,০০০ এর বেশী ব্র্যান্ড এবং ছোট মাঝারি উদ্যোক্তাদের সাথে। এটি ডিজিটালঅর্থনীতির ক্রমাগত অগ্রগতির দিকনির্দেশনা দেয়। এরই পাশাপাশি দক্ষিণ এশিয়ার সর্বাধিক মানুষের কাছে কমার্সের সুবিধাগুলি পৌঁছে দেয়া সুনিশ্চিতকরে।

সর্বোত্তম দাম অফারের মাধ্যমে ক্রেতাদের জন্য একটি উন্নত মানের জীবন নিশ্চিত করা

বর্তমান বিশ্বে অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জএর সাথে সাথে বেড়ে চলেছে জীবনযাত্রার খরচ। এমতাবস্থায়, দারাজ ১১.১১ একটি মূল্যবান সুযোগ যেখানে ক্রেতারাপেয়ে যাচ্ছেন উন্নতমানের ফ্যাশন, বিউটি, হোম ডেকোর এবং আরো অনেক আইটেম। সারা বছরের অপেক্ষার পর পছন্দের জিনিসগুলো কেনার সুযোগপাওয়া যাচ্ছে সবচেয়ে কম দামে, সাথে ৬৩% ক্রেতারা উপভোগ করেছেন ফ্রি ডেলিভারি এর সুবিধা।   

ব্র্যান্ড এবং বিক্রেতাদের ব্যবসা বৃদ্ধির অসাধারণ সুযোগঃ

গত এক বছরে দারাজ নতুন নতুন প্রযুক্তিতে বিশেষভাবে বিনিয়োগ করেছে। এসকল প্রযুক্তি বিক্রেতাদের সাহায্য করে দারাজে তাদের অনলাইন বিক্রয়েগতি বৃদ্ধি করতে ১৪,০০০ এর বেশি ছোট মাঝারি উদ্যোক্তা (এস এম ) দারাজের ১১.১১ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করেছেন প্রথম ২৪ ঘন্টায়।চমৎকার এই সাফল্যকে সামনে রেখে দারাজ বিক্রেতাদের ক্রমাগত আয় বৃদ্ধিতে অবদান রাখতে পারবে বলে আশাবাদী।

দারাজ গ্রুপের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার বিয়ারকে মিকেলসেন এই মাইলফলক সম্পর্কে বলেন, ‘এই চ্যালেঞ্জিং সময়ে আমরা ক্রেতাদের কাছে সম্ভাব্যসর্বোত্তম মূল্য অফার নিশ্চিত করতে চেয়েছি। এটি আমাদের বিক্রেতাগণ পার্টনারদের ছাড়া সম্ভব ছিল না। এছাড়াও দারাজে আরও অনেক নতুনবিক্রেতা যোগ দিচ্ছেন। দারাজকে ভরসা করার জন্য আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। এবারের ১১.১১ ক্রেতাদের অভিভূত সাড়া পেয়ে আমরা অত্যন্তউৎসাহিত। আশা করি আমরা সারা বছর ক্রেতাদের জন্য সেরা পণ্য, সেরা মূল্য এবং সেরা মান নিশ্চিত করার আমাদের প্রতিশ্রুতিকে বজায় রাখতে সক্ষমহব।

দারাজ বাংলাদেশ এর ১১.১১ ক্যাম্পেইনের প্রথম ২৪ ঘন্টার কিছু উল্লেখযোগ্য তথ্যঃ 

●   ফ্যাশনের জনপ্রিয়তা বজায় রেখে প্রথম ২৪ ঘন্টায় ,৬০,০০০এর বেশী ফ্যাশন পোশাক বিক্রি হয়েছে। এর মাঝে বাংলাদেশী নারীদের ঐতিহ্যবাহীপোশাকের সংখ্যাই বেশী। 

দারাজ ১১.১১ সেলে ,৫০,০০০এরও বেশী মোবাইল ফোন, কম্পিউটার এবং ল্যাপ্টপ বিক্রয় হয়েছে যা দেশের লক্ষাধিক মানুষের প্রয়োজন পূরণকরেছে।

●   দৈনন্দিন জীবনযাত্রার সকল পণ্যের একমাত্র গন্তব্যস্থল হওয়ার প্রতিশ্রুতিকে বজায় রেখে দারাজ ,৭৫,০০০এর বেশী গ্রোসারি আইটেম বিক্রিকরেছে। এর মাঝে চাল তেলের মত মৌলিক পণ্য বিক্রি হয়েছে সবচেয়ে বেশী। 


দারাজ ১১.১১ ক্যাম্পেইন হাইলাইটসঃ

ক্রেতাদের কাছে সর্বোত্তম মূল্যে মানসম্পন্ন পণ্যগুলো পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে দারাজ এনেছে আকর্ষণীয় ডিলসমূহ। এর মাধ্যমে ক্রেতারা কেনাকাটা করার সময়অনেক বেশি সাশ্রয় করতে পারেবেন। 

অবিশ্বাস্য ছাড়ঃ গ্রাহকরা ৫০ কোটি টাকা মূল্যমানের ছাড় সহ অতুলনীয় কেনাকাটার অভিজ্ঞতা উপভোগ করতে পারবেন।

অশেষ ডিলসমুহঃ ২০ লক্ষ ডিলের সাথে বছরের ১১.১১ আগের চেয়ে বড় যেখানে রয়েছে সুলভ মূল্যে পণ্য কেনার সুযোগ।

ফ্রি ডেলিভারিঃ অবস্থান নির্বিশেষে, দারাজ এই মেগা উৎসব উদযাপনের জন্য নির্বাচিত পণ্যসমূহে বিনামূল্যে ডেলিভারি অফার করছে।  

ক্যাশব্যাক অফারঃ দারাজ ১৫% পর্যন্ত সঞ্চয় নিশ্চিত করছে অসংখ্য পেমেন্ট পার্টনারদের সাহায্যে যাদের মাঝে আছে বিকাশ, নগদ, ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাকব্যাংক, সিটি ব্যাংক লিমিটেড, দারাজইবিএল কোব্র্যান্ড কার্ড এবং আরও অনেকে। 


১১.১১ আকর্ষণীয় ডিলগুলি ছাড়াও, ক্রেতারা সারা বছর প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে সেরা মানের পণ্য উপভোগ করতে পারে। দারাজে আছে প্রতিদিনেরকম দামের ডিল থেকে শুরু করে আকর্ষণীয় ভাউচার এবং ফ্ল্যাশ সেল যা তার ব্যবহারকারীদের জন্য কেনাকাটাকে সাশ্রয়ী এবং সুবিধাজনক করে তোলে।এই ধরনের উদ্যোগগুলি ক্রেতাদের দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় জিনিসগুলিতে সঞ্চয় করার সুযোগ করে দেয়ার পাশাপাশি অনলাইন কেনাকাটাকে শোভনীয়অভিজ্ঞতায় রূপান্তরিত করে। এর মাধ্যমে তাদের জীবনযাত্রার মান হয় আরও উন্নত। 

দারাজ বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, ‘আমরা আমাদের পার্টনারসমূহ, ক্রেতাগণ এবং অবশ্যই আমাদের টিমের কাছেকৃতজ্ঞ তাদের প্রশংসনীয় সমর্থনের জন্য যা ১১.১১কে বাস্তবায়ন করতে সাহায্য করেছে। মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধির সময়ে, আমাদের বছরের লক্ষ্য ছিলক্রেতাদের সঞ্চয় সর্বাধিক করতে সাহায্য করা এবং বিক্রেতা উদ্যোক্তাদের জন্য নতুন আয়ের সুযোগ তৈরি করা।

আমরা চেয়েছি জীবনযাত্রার ক্রমবর্ধমান ব্যয় মোকাবেলা করায় তাদের সাহায্য করতে। আমরা সামনের দিনগুলিতে আমাদের ক্রেতাদের আরও বেশি সঞ্চয়এবং বৈচিত্র্যের মাধ্যমে সেরা কেনাকাটার অভিজ্ঞতা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এরই সাথে আরও বেশি বিক্রেতাদের তাদের ব্যবসায়িক বিকাশে সহায়তা করতেপ্রস্তুত।

১১.১১, বছরের সবচেয়ে বড় সেল, চলছে ১১ থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত। এখুনি ঘুরে আসুন দারাজে এবং উপভোগ করুন অবিশ্বাস্য ডিল এবং অফার।