ফরিদপুরে বাহারি রংয়ের স্কোয়াস চাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে

0

ফরিদপুরে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বাহারি রংয়ের স্কোয়াস চাষ। কম সময়ে বেশি লাভ হওয়ায় আগ্রহী হয়ে উঠছে সবজি চাষিরা। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে সরবরাহ করা হচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। নতুন ধরনের এ সবজির উৎপাদন বাড়াতে কৃষি বিভাগ পাশে থাকবে বলে আশা করছে কৃষক।

ফরিদপুরের মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে বাহারী রংয়ের স্কোয়াস চাষ। বোয়ালমারী ও নগরকান্দা উপজেলায় জুকিনি, মনটিনা, লিমা ও প্রিমিয়াম এই চার ধরনের স্কোয়াস চাষে ব্যাপক সফলতা পেয়েছে কৃষক। গাছ লাগানোর ৪৫ দিন পর থেকেই সবজি সংগ্রহ করা যায়। ফল আসার পর প্রতিটি গাছ থেকে দু’মাস পর্যন্ত ২৫/৩০টি স্কোয়াস সংগ্রহ করা যায়।

এই সবজি উৎপাদনে কোন কীটনাশক ব্যবহার করা লাগেনা। পোকা দমনে ব্যবহার করা হচ্ছে আলোর ফাঁদ ও পারচিং প্রদ্ধতি। এক বিঘা জমিতে স্কোয়াস চাষ করতে খরচ হয় ২৫ হাজার টাকা। সেখান থেকে আয় করা যায় ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকা। কম খরচে বেশি লাভ হওয়ায় কৃষক খুশি।

বিদেশি এই সবজি চাষে সফলতা দেখে আগ্রহী উয়ে উঠছে অনেকেই। সরকারি সহযোগিতা পেলে আগামীতে ব্যাপকভাবে চাষের আশা করছে তারা।

কৃষকদের মাঠ পর্যায়ে সব ধরণের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলে জানায়, কৃষি বিভাগ।

জেলায় এ বছর ছ’হেক্টর জমিতে স্কোয়াসের আবাদ হয়েছে। প্রায় ৯০ মেট্রিক টন উৎপাদন হবে বলে আশা করছে কৃষি অফিস।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন