নগদ ১ কোটি ৯ লাখ টাকা ও ৮ কেজি সোনাসহ গোল্ডেন মনির আটক

0

দোকানের সামান্য বিক্রয় কর্মী থেকে হাজার কোটি টাকার মালিক বনে যাওয়া স্বর্ণ ব্যবসায়ী গোল্ডেন মনিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গেল রাতে ঢাকার মেরুল বাড্ডা থেকে রেব গ্রেফতার করে তাকে। এ সময় গোল্ডেন মনিরের এক হাজার ৫০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের খোঁজ পায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। স্বর্ণ চোরাকারবারী, মাদক ও ভূমি দস্যূতা করে এসব সম্পদ অবৈধপথে আয় করেছেন বলে জানিয়েছেন রেবের পরিচালক লে. কর্ণেল আশিক বিল্লাহ। সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে আতাঁত করে এসব সম্পদ অর্জনের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান তিনি।

গোয়েন্দা নজরদারির ভিত্তিতে রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় ১১ নম্বর সড়কে ৪১ নম্বরের বাড়িতে শুক্রবার রাত ১০টা থেকে শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত অভিযান চালায় রেবের ভ্রাম্যমান আদালত।

তাদের হাতে আটক হন গাড়ি ও স্বর্ণ ব্যবসায়ী মো. মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনির।

৬ তলা বিশিষ্ট এই বাড়ীতে রাতভর অভিযান চালিয়ে এক হাজার ৫০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য পায় রেব।

এসময় সেখান থেকে ৬শ’ ভরি স্বর্ণ, নগদ এক কোটি নয় লাখ টাকা, ১০টি দেশের মুদ্রায় প্রায় ৯ লাখ টাকা, বিদেশি মদ ও পিস্তল এবং কয়েক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।পাশাপাশি পাঁচটি বিলাসবহুল গাড়ীর মধ্যে তিনটরি অনুমোদন নেই। রাজউকের কর্মকর্তার সাথে কারসাজি করে ২ শ’র বেশী প্লট হাতিয়ে নিয়েছে সে ।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে আটক মনিরের গ্রেফতারের তথ্য জানাতে সকাল ১১টায় ঘটনাস্থলে সংবাদ সম্মেলন করে রেব।

আশিক বিল্লাহ জানান, মনিরের বিরুদ্ধে অস্ত্র,মাদক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে বাড্ডা থানায় তিনটি মামলা দায়ের করা হবে ।

বিদেশে অর্থপাচারের বিষয়ে সিআইডি, অনুমোদনহীন গাড়ির জন্য বিআরটিএ এবং দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদকে আইনী ব্যবস্থা নেয়ারও অনুরোধ জানানো হবে বলেও জানান লে. কর্ণেল আশিক বিল্লাহ।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন