দেশে গণতন্ত্র, সুশাসন ও বিচারের সংস্কৃতি না থাকায় ধর্ষণ-নির্যাতন বেড়েছে : বিএনপি

0

দেশে গণতন্ত্র, জবাবদিহিতা, সুশাসন এবং বিচারের সংস্কৃতি না থাকায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বেড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা। অবৈধ সরকারই নারী নির্যাতনকারী এই দানবদের সৃষ্টি করেছে অভিযোগ করে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ডক্টর খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, শুধু আইন দিয়ে এটা রোধ করা সম্ভব নয়। অপরদিকে, গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, স্বাধীনতার লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে হলে দেশ থেকে বৈষম্য দূর করার কোনো বিকল্প নেই। রাজধানীতে আলাদা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন, তারা।

ধর্ষন ও নারী নির্যাতন বন্ধের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল। এতে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, বর্তমান সরকার সাংবিধানিক নয় বলে, নেতাকর্মীরা বেপরোয়া। এ কারনেই দেশে ধর্ষন ও নারী নির্যাতন বেড়েছে।

এদিকে, জাতীয় প্রেসক্লাবে বিচারহীনতার সংস্কৃতি, ন্যায়বিচার এবং বর্তমান বাংলাদেশ শিরোনামে আলোচনা সভায় নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ফাঁসির সাজায় ধর্ষন বন্ধের নিশ্চয়তা নেই। কারন, আওয়ামী লীগ সরকার ধর্ষনকারীদের প্রশ্রয় দেয়।

ওদিকে, জাতীয় প্রেসক্লাবে গণফোরামের সভায় মোবাইল ফোনে যুক্ত হন দলটির সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, স্বাধীনতার লক্ষ্য বাস্তবায়নে দেশ থেকে বৈষম্য দূর করতে হবে।

সারাদেশে গণফোরামকে বিস্তৃত করতে যুবক ও নরীদের যোগ দেয়ার আহ্বানও জানান, ড. কামাল হোসেন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন