দেশীয় প্রজাতির মাছের প্রচুর পরিমাণে শুঁটকি করা হচ্ছে গোপালগঞ্জে

0

গোপালগঞ্জে দেশীয় প্রজাতির মাছের প্রচুর পরিমাণে শুঁটকি করা হচ্ছে। মান ভালো হওয়ায় এখানকার শুঁটকির কদর রয়েছে সারাদেশে। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এসে এসব শুটকী কিনে নিয়ে যাচ্ছেন পাইকাররা। দাম ভালো পাওয়ায় খুশী- শুটকী উৎপাদক ব্যবসায়ীরা।

গোপালগঞ্জে চান্দার বিল, বড় বিল, উজানীর বিল, মধুমতি নদী, কুমার নদ, খালসহ অসংখ্য ছোট-বড় জলাভূমি রয়েছে। আশ্বিন মাস এলেই ধরা পড়ে শোল, টাকি, বাইন, খলিসা, পুঁটি, টেংরাসহ প্রচুর দেশীয় প্রজাতির মাছ। এ মাছকে কেন্দ্র করে জেলার বিভিন্ন জায়গায় গড়ে উঠেছে শুঁটকি আড়ৎ। নারীরা মাছ কেটে-ধুঁয়ে পরিষ্কার করে দেয়ার পর পুরুষরা তা রোদে শুকিয়ে শুঁটকি তৈরি করে।

মন প্রতি ১৮ থেকে ২৫ হাজার টাকায় শুঁটকি বিক্রি হয়। মিঠা পানির মাছের শুঁটকি হওয়ায় এর কদর রয়েছে দেশজুড়ে। বিভিন্ন এলাকা থেকে পাইকাররা এসে শুঁটকি কিনে নিয়ে বিক্রি করে।

কীটনাশকমুক্ত স্বাস্থ্যসম্মত শুঁটকি উৎপাদনের জন্য প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলে জানায়, মৎস্য অফিস।

কম সুদে ব্যাংক ঋণ পেলে শুঁটকি ব্যবসার প্রসার ঘটানো সম্ভব বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন