দেশব্যাপী যান চলাচল ও দোকানপাট বন্ধসহ কিছু এলাকা লকডাউন ঘোষণা

0

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে দেশব্যাপী যান চলাচল ও দোকানপাট বন্ধসহ কিছু এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে । সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে স্থানীয় প্রশাসন নিয়েছে নানা উদ্যোগ। জেলা শহরগুলোর নেই চিরচেনা রূপ। ব্যস্ত সড়ক-মহাসড়ক এখন যানবাহন শূণ্য। সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে মোড়ে-মোড়ে অবস্থান নিয়েছে সেনাবাহিনীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। কাঁচাবাজার, ওষুধের দোকান ছাড়া সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে প্রশাসনের নির্দেশে কুমিল্লায় চলছে অঘোষিত লকডাউন। নগরীর রাস্তাঘাট এখন ফাঁকা এবং প্রায় জনশূন্য। নগরীর প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড় ও রাজগঞ্জসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় এমন চিত্র দেখা গেছে। খাবার ও ওষুধের দোকান ছাড়া বন্ধ রয়েছে সব দোকানপাট ও গণপরিবহন।

দ্বিতীয় দিনের মতো শেরপুরে চলছে অঘোষিত লকডাউন। দূরপাল্লার যানবাহন এবং দোকানপাট বন্ধ থাকার কারণে শহরে চলছে সুনসান নীরবতা। জেলায় সবকটি উপজেলায়ও একই চিত্র।

করোনাভাইরাস থেকে সতকর্তায় পাবনার চাটমোহর উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামকে লকডাউন ঘোষণা করেছে প্রশাসন।
গত দু’দিনে মাদারীপুর থেকে ৪২ জনসহ ঢাকা-চট্টগ্রাম থেকে মোট ৬৪ জন কর্মজীবি মানুষ কাটাখালী গ্রামে আসলে পুরোগ্রামটিকে লকডাউন ঘোষণা করে উপজেলা প্রশাসন।

এছাড়াও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও মানুষকে ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে ঝিনাইদহে টহল অব্যাহত রেখেছে সেনাবাহিনী। সকাল থেকে তারা শহরে টহল শুরু করে। শহরের পায়রা চত্বর, আরাপপুর, হামদহ, বাস টার্মিনাল এলাকায় মাইকিং করে জনগণকে ঘরে থাকাসহ করোনা প্রতিরোধে নানা পরামর্শ দেয় ।

দুপুরে জামালপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ এবং শহরবাসীর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় শহরের কয়েকটি পয়েন্টে জীবানুনাশক ওষুধ ছিটানো হয় । সেনা বাহিনীর একটি দল পানির ট্যাংক ও হ্যান্ড স্প্রে মেশিনের মাধ্যমে শহরের সকাল বাজার, হাসপাতাল চত্বরে জীবাণু নাশক ওষুধ ছিটিয়েছে।

বগুড়ায় জীবানুনাশক ছিটানোর কর্মসূচী শুরু করেছে সেনা সদস্যরা। সকালে শহরের সাতমাথা এলাকা থেকে এই কর্মসূচী শুরু করা হয়।

মানিকগঞ্জে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে পাটুরিয়া- দৌলতদিয়ায় জরুরী যানবাহন ছাড়া সবধরনের যানবাহন পারাপার বন্ধ রয়েছে। যেখানে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন ফেরি পার হলেও শুক্রবারের দিন সম্পুর্ণ ভিন্ন।

সকাল থেকেই নাটোরের বিভিন্ন স্থান টহল দিতে শুরু করে সেনা সদস্যরা।এছাড়াও সেনা বাহিনীর সদস্যরা কেন্দ্রীয় মসজিদের ভিতরে বাইরে ,সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে জীবানুনাশক স্প্রে করেন এবং জেলার বিভিন্ন সড়কে জীবানুনাশক ওষুধ দিয়ে পরিস্কার করেন।

সকাল থেকে রাঙামাটির বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জেলা প্রশাসন। জেলার সড়কগুলোতে ম্যাজিষ্ট্রেট, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর ৪টি টিম প্রতিনিয়ত কাজ করছে। বিভিন্ন এলাকায় ও বাজারে টহল দিতে দেখা গেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে।

সারাদেশের ন্যায় সাভারেও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী । একই সাথে সেনা সদস্যরা বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের নজরদারিতে রেখছেন।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে চুয়াডাঙ্গায় ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের সামনে সাদা রঙের প্রলেপ অঙ্কন শুরু করেছে প্রশাসন। বিকেলে শহরের শহীদ হাসান চত্বর থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

সরকারী নির্দেশনায় কুড়িগ্রামে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ৩য় দিনের মত শহর ও গ্রামাঞ্চলের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। তবে খোলা রয়েছে কাঁচাবাজার, ঔষধের দোকান ও নিত্যপন্যের দোকান। গণ পরিবহন বন্ধ থাকায় রাস্তা-ঘাট ফাঁকা হয়ে গেছে।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানোসহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটুর তত্বাবধানে প্রতিদিন নগরীর প্রতিটি সড়কে জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটিয়ে পানি দিয়ে সড়ক ধোয়ার কাজ চলছে।

গোপালগঞ্জে জেলা প্রশাসনের সাথে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী। সকাল থেকে জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলা সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করছে তারা।

করোনাভাইরাসের প্রাদুভার্ব মোকাবেলায় সরকারের ছুটি ঘোষণা অনুয়াযী গাইবান্ধায় সকাল থেকে শহুরের রাস্তা গুলোতে পুলিশের সবর উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

সকালে শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খোরশেদ আলম চৌধুরী, সেনাবাহীনী, পুলিশ সদস্যদের নিয়ে যশোরের শার্শা, বেনাপোলসহ সীমান্তবর্তী বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন।

মৌলভীবাজারে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে পৌর এলাকার প্রধান সড়কসহ বিভিন্ন আবাসিক এলাকায় জীবানুনাশক ছিটানো হয়েছে।

এছাড়া, মাগুরায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে লগ ডাউনের সময় অতি দরিদ্র মানুষের কষ্ট লাঘবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণে কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন