দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের পরবর্তী শুনানি ৫ ডিসেম্বর

0

আগামী ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে খালেদা জিয়ার সবশেষ স্বাস্থ্য প্রতিবেদন দাখিল করতে বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পূর্নাঙ্গ বেঞ্চ আজ এই আদেশ দেন। এর আগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের শারীরিক অসুস্থ্যতার কথা উল্লেখ করে আদালতে জামিনের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

দুর্নীতির এক মামলায় সাজা হওয়ার পর, গত বছর ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে আছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। কারাগার থাকা অবস্থায় গত বছর ২৯ অক্টোবর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয় বিচারিক আদালত। বর্তমানে তিনি কারা কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধানে বিএসএমএম ইউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

পরে, ওই রায়ের বিরুদ্ধে খালাস ও জামিন চেয়ে আবেদন করা হলে তা খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের পূর্নাঙ্গ বেঞ্চে বিএনপি চেয়ারপার্সনের অসুস্থ্যতার কথা তুলে ধরেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। শুনানি শেষে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সবশেষ স্বাস্থ্য প্রতিবেদন দাখিল করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয় আদালত।

শুনানিতে খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থ্যতার বিষয়ে চিকিৎসকদের দেয়া পরামর্শ তুলে ধরার কথা বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনের আইনজীবীরা।

এদিন, আপিল বিভাগে খালেদা জিয়ার শুনানিকে কেন্দ্র করে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয় সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন