ঢাকার পর চট্টগ্রামেও শুরু হয়েছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্তের পরীক্ষা

0

ঢাকার পর চট্টগ্রামেও শুরু হয়েছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্তের পরীক্ষা। চার দিনে ১৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলেও, কারো দেহেই করোনার উপস্থিতি সনাক্ত হয়নি। বিআইটিআইডি বলছে, সনাক্তকরণ কিট ও প্রয়োজনীয় ইক্যুইপমেন্ট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরোদমে কাজ শুরু হয়েছে। আর জেলা প্রশাসক বলছেন, নতুন রোগী পাওয়া না গেলেও নির্ধারিত সময় পর্যন্ত জনসমাগমের ওপর কড়াকড়ি বহাল থাকবে।

ঢাকার আইইডিসিআরের পর চট্টগ্রামের বিআইটিআইডি হাসপাতালকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের জন্য ডেটিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার। ইতিমধ্যে আক্রান্ত রোগীদের পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় কিট, চিকিৎসক ও নার্সদের পিপিইসহ যাবতীয় চিকিৎসা সামগ্রীও এসেছে। ২৫ মার্চ থেকে উপসর্গ থাকা রোগীদের পরীক্ষা নিরীক্ষা শুরু করেছে বিআইটিআইডি। রোগটি অত্যন্ত ছোয়াচে হওয়া নেয়া হয়েছে বাড়তি সতর্কতা।

প্রাথমিকভাবে দেড়শোটি কিট দেয়া হয়েছে চট্টগ্রামে। গেল ৪ দিনে পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ জনের নমুনা। তবে কারো মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিত সনাক্ত হয়নি। এদিকে করোনা ভাইরাস যাতে বন্দর নগরীতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে, সে ব্যাপারে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে নানা উদ্যোগ। সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ করলেন জেলা প্রশাসক। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সঙ্গে প্রধান সমুদ্র বন্দরের অবস্থান হওয়ায় চট্টগ্রামকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সবচেয়ে ঝুঁকিপুর্ণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। যদিও এই জেলায় এখনো এই রোগে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়নি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন