ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি নাগরিক সম্পৃক্ততা জরুরি

0

পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি নাগরিক সম্পৃক্ততা জরুরি।

এফডিসিতে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ‘ডেঙ্গুর প্রকোপ রোধে নগরবাসীর সক্রিয় অংশগ্রহণ’ নিয়ে ছায়া সংসদে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে আসতে পারে। মশা নিধনের জন্য যে কীটনাশক ব্যবহার করা হয়, তা যাতে জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশের ক্ষতি না করে, সেদিকে সর্বোচ্চ নজর রাখা হচ্ছে। একইসঙ্গে মশার ওষুধ ছিটানোর কাজে নিয়োজিত কর্মীদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মন্ত্রী আরও বলেন ডেঙ্গুতে যারা মারা যাচ্ছেন, এমন কোনো অসহায় পরিবার আর্থিক সহায়তা চাইলে সরকার তার ব্যবস্থা করবে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন