ছয় মাসের মধ্যে বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ শেষ করার তাগিদ

0

ছয় মাসের মধ্যে তৈরি পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠন-বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ শেষ করার তাগিদ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। দুপুর সাড়ে ১২টায় বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কার্যক্রম আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর এ কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী আরো বলেন, হাতিরঝিল প্রকল্পের মধ্যে শুধু বিজিএমইএ ভবন নয়, যত অবৈধ স্থাপনা আছে সবগুলো অপসারণ করা হবে।

২০১১ সালের ৩ এপ্রিল হাইকোর্ট এক রায়ে বিজিএমইএ’র বর্তমান ভবনটিকে হাতিরঝিল প্রকল্পে একটি ক্যানসারের মতো উল্লেখ করে রায় প্রকাশের ৯০ দিনের মধ্যে ভবনটি ভেঙে ফেলতে নির্দেশ দেন। এরপরও বিজিএমইএ কালক্ষেপেন করে কাটিয়ে দেয় ৯ বছর। অবশেষে ভবনটি ভাঙার উদ্যোগ নেয় সরকার। আনুষ্ঠানিকভাবে ভবনটি ভাঙার কাজ উদ্বোধন করেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী।

হাতিরঝিল প্রকল্পের বিষফোড়াখ্যাত বিজিএমইএ’র এই ভবন ভাঙার কাজটি করছে ফোরস্টার এন্টারপ্রাইজ।

ফোরস্টার এন্টারপ্রাইজের পরিচালক নসরুল্লাহ খান রাশেদ বলেন, ভবন ভাঙার কাজে বুলডোজার, এক্সেভেটর, শাবল ব্যবহার হবে। পুরোদমে ভাঙা শুরু হবে ২৭ জানুয়ারি থেকে।

ভবনটি ভাঙার কাজ তদারকিতে সার্বক্ষণিক দায়িত্বে থাকবে রাজউক ও সেনা বাহিনীর আলাদা দুটি ইউনিট।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন