চুয়াডাঙ্গায় বাণিজ্যিকভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শরিফা চাষ

0

চুয়াডাঙ্গায় বাণিজ্যিকভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শরিফা চাষ। সুস্বাদু এই ফলের চাহিদাও প্রচুর। বাজারে দাম ভালো থাকায় উৎপাদন বাড়াতে আগ্রহ তৈরি হয়েছে কৃষকের। কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, মেওয়া বা শরিফার লাভজনক চাষে নানা উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গায় সদর ও জীবননগরে ৫০ বিঘা জমিতে বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে শরিফা বা মেওয়া চাষ। এছাড়া, বিচ্ছিন্নভাবে অনেকের বাড়ির আঙ্গিনায় এ ফলের গাছ রয়েছে। সুস্বাদু ও পুষ্টিকর হওয়ায় এর চাহিদা অনেক বেশি। কম খরচে লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরা আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এখানে দেশি ও থাই জাতের মেওয়া চাষ বেশি হচ্ছে।

প্রতি বিঘা জমিতে ১০০ থেকে ১২০টি গাছ লাগানো যায়। প্রতিটি চারার দাম ৬০ থেকে ৮০ টাকা। গাছ লাগানোর এক বছর পরেই ফুল আসতে শুরু করে। প্রতিটি গাছে ২০ থেকে ২৫ কেজি পর্যন্ত ফল পাওয়া যায়। প্রতি কেজি মেওয়া বিক্রি হচ্ছে দু’শ থেকে সাড়ে তিন’শ টাকায়। সুপার সপ, ফলের মার্কেট ও স্থানীয় বাজারেও বিক্রি হয়।

মেওয়া চাষে খরচ কম। বাগান তৈরিতে সব ধরনের সহযোগিতা করছে সরকার। কৃষকদের এ বিষয়ে কারিগরি প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানায়, কৃষি বিভাগ। পুষ্টি চাহিদা পূরণের পাশাপাশি মেওয়া চাষে কৃষক লাভবান হবে বলে মনে করেন তিনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন