চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গেলো ২৪ ঘন্টায় আরো ৬৫ জনের মৃত্যু

0

চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গেলো ২৪ ঘন্টায় আরো ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৪৯০ জনে। আর আক্রান্ত হয়েছে সর্বমোট ২৪ হাজার ৩২৪ জন। এদিকে, জাপানে একটি ক্রুজ জাহাজে ১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের কারণে বৈশিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেও এখনো এটি মহামারি ঘোষণা করার সময় হয়নি বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। একই সাথে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। গেলো ২৪ ঘন্টায় ৬৫ জনের মৃত্যু হওয়ায় এ সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৯০ জনে। এছাড়া দেশটির বাইরে মৃত্যু হয়েছে আরো ২ জনের।
এদিকে, জাপানে একটি ক্রুজ জাহাজে ১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। ভাইরাস ধরা পড়ার পর তাদের আলাদা করে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে জাপানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এই নিয়ে বিশ্বের ২৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এই করোনাভাইরাস। আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ২৫ হাজার।

এদিকে, করোনাভাইরাসে হংকংয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনার পর শহরটির সাথে ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করেছে দুটি মার্কিন এয়ারলাইন্স। এছাড়া চীন থেকে নিজেদের নাগরিক ও সহ কর্মকর্তদের দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া সহ বিশ্বরে বিভিন্ন দেশ। তবে চীন ফেরত মানুষকে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে রেখেছে তারা।

চীনসহ বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ব্যাপকতার কারণে গেলো সপ্তাহে স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে এখন পর্যন্ত এটিক মহামারি ঘোষণা করার সময় হয়নি বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। চীনের বাইরে করোনাভাইরাসের বিস্তার এখনো সীমিত আকারে এবং ধীরগতিতে ঘটছে। চীন থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে, সেখানেই এটি মোকাবেলা করা গেলে অন্য দেশে এটি কম ছড়াবে। একই সময়ে যখন বিশ্বজুড়ে অসংখ্য মানুষ কোন সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হন, ডব্লিউএইচও এর মতে, তখনই তাকে বিশ্ব মহামারী বলা যায়।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন