চালু হয়নি পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব

0

অবকাঠামো নির্মিত হলেও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও জনবল না থাকায় চালু হয়নি পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব। করোনা পরীক্ষার ফলাফল পেতে তিন থেকে পাঁচ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে, জেলার পাঁচটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেপিড এন্টিজেন কিট ও জিনএক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে করোনা শনাক্ত করা হচ্ছে বলে জানান, সিভিল সার্জন।

করোনা বিস্তারের শুরু থেকেই পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দাবি উঠে। এক বছর পর, ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মান শুরু হয়। গেল এপ্রিলে কাজ শেষ হলেও, স্থাপন করা হয়নি পিসিআর ল্যাব। দ্রুত ল্যাব স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

এখন পর্যন্ত প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি দেয়নি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া, ল্যাবের জন্য আট জন মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট ও চার জন করে ডাটা এন্ট্রি অপারেটর, অফিস সহায়ক এবং পরিচ্ছন্নতা কর্মী লাগবে। একাধিকবার অবহিত করেও জনবল পাওয়া যায়নি।

এদিকে, এন্টিজেন টেস্ট ও জিনএক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে করোনা পরীক্ষা করে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেস্টা চলছে বলে জানান, সিভিল সার্জন।

সম্প্রতি সারাদেশের মতো পটুয়াখালীতেও হু-হু করে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত জেলায় মারা গেছে ৬০ জন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন