চার জেলায় পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধার

0

সিরাজগঞ্জে দু’জনসহ নোয়াখালী, গোপালগঞ্জ ও ময়মনসিংহে পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার সোনাদিয়া থেকে সকালে মোহাম্মদ ফরিদ নামে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করা হয়। ফরিদ সোনাদিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদ হুমায়ুনের ছেলে। হাতিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নিখোঁজের প্রায় তিন মাস পর মাটির নিচ থেকে কমলেশ বাড়ৈ নামে এক কাঠমিস্ত্রির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় কাঠমিস্ত্রীর স্ত্রী ও ৫ জনকে আটক করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার তালপুকুরিয়া গ্রামের একটি মাছের ঘেরের পাড় থেকে মাটিচাপা দেয়া মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে নিখোঁজের একদিন পর ইমন হোসেন নামে তৃতীয় শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সকালে উপজেলার বীরগুছিনা গ্রামে বিদ্যুতের তারে জড়ানো অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার বিকেলে মাঠে গরু আনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ইমন।

এদিকে, সিরাজগঞ্জের কাজীপর উপজেলার পৃথক স্থান থেকে বৃদ্ধা নারী ও মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সকালে উপজেলার পৌর এলাকার বেড়িপোটল মহল্লা ও সোনামুখী ইউনিয়নের স্থলবাড়ি গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহতরা হলেন বেরিপোটল মহল্লার আব্দুল করিম বক্সের স্ত্রী ছামনা বেগম ও স্থলবাড়ি গ্রামের শহীদ সরকারের ছেলে সিপন সরকার।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন