চলনবিল অধ্যুসিত উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জ জেলা

0

চলনবিল অধ্যুসিত উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জ জেলা। প্রতিবছরই নদী ভাঙন আর বন্যার কারণে অনেকটা ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বর্তমান সরকারের মেয়াদে সিরাজগঞ্জ জেলাকে অগ্রসর জেলায় রূপান্তর করতে অর্থনৈতিক অঞ্চলসহ নানামূখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তার পরও শস্য ভান্ডার ও তাঁত শিল্পের জন্য বিখ্যাত এ জেলায় যমুনার ভাঙন থেকে রক্ষায় স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ, কৃষি ভিত্তিক শিল্প কারখানা স্থাপন, বেকার সমস্যা সমাধানসহ নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যেমে এই জেলাকে আরও এগিয়ে নেয়া দাবি উঠেছে।

যমুনা নদী বিধৌত ৬টি সংসদীয় আসন ৯টি উপজেলা, ৭টি পৌরসভা ও ৮৩টি ইউনিয়নে মোট ৩২ লাখ জনসংখ্যার অধিকাংশ লোক কৃষি ও তাঁত শিল্পসহ বিভিন্ন পেশায় জড়িত। প্রতিবছরই নদী ভাঙন আর বন্যার কারণে অনেকটা ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বর্তমান সরকারের মেয়াদে সিরাজগঞ্জ জেলাকে অগ্রসর জেলায় রূপান্তর করতে অর্থনৈতিক অঞ্চলসহ নানামূখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এতে কর্মসংস্থান সৃষ্টির সম্ভাবনা বেড়েছে। এরপরও আগামী বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের মাধ্যমে উন্নয়ন প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়ন এবং নারী বান্ধব বাজেট প্রণয়ন করে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের মাধ্যমে বেকারদের নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির দাবি উঠেছে।

এদিকে, নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যেমে এজেলাকে আরও এগিয়ে নেয়ার দাবিও জানিয়েছেন জেলা স্বার্থ রক্ষা সংগ্রাম কমিটির নেতা ও ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতারা। আগামী বাজেটে সম্পদের সুসমবন্টন, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও বিশেষ বরাদ্দ দিয়ে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে জেলার অর্থনীতির চাকা তড়ান্বিত করা হবে এমনই প্রত্যাশা সিরাজগঞ্জবাসীর।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন