০৬:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

চট্টগ্রামে দ্বিতীয়বারের মত ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ অনুষ্ঠিত

এস. এ টিভি
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৭:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ১৬৬৮ বার পড়া হয়েছে
এস. এ টিভি সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চট্রগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয়বারের মতো খুবই অসাধারণভাবে আয়োজিত হয়ে গেল “ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ চট্টগ্রাম বিভাগ”। যা সমগ্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য “NUSDF Bangladesh” কর্তৃক সবচেয়ে বড় ও চিত্তাকর্ষক আয়োজন।

২৩ই ফেব্রুয়ারি ২০২৪,  চট্টগ্রামের খুলশীতে অবস্থিত চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি (CVASU)- এর বিরাট অডিটোরিয়ামে দিনব্যপী একটি জমজমাট অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আয়োজিত হয়ে গেলো “ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ চট্টগ্রাম বিভাগ”। যা মূলত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ও জনপ্রিয় কর্পোরেট ব্যক্তিত্বদের এক অসাধারণ মিলনমেলা।

এই সামিটটি মূলত দক্ষতা অর্জনের প্রয়োজনীয়তা, গুরুত্ব এবং কর্পোরেট নেটওয়ার্কিংয়ের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয়৷ NUSDF Bangladesh এর এই জাতীয় পর্যায়ের আয়োজনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের বিশিষ্ট শিক্ষক, অধ্যক্ষ এবং বেশ কিছু সফল কর্পোরেট ব্যক্তিত্বরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। চট্রগ্রাম ও চট্টগ্রামের বাহিরের ৩০০ এর বেশি শিক্ষার্থী এই আনন্দ আয়োজনে অংশ নিয়েছিলেন।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত দিয়ে শুরু হওয়া এই জমজমাট আয়োজনে বিশেষ অতিথি ও মূল বক্তা হিসেবে দেশের খ্যাতনামা রিয়েল এস্টেট ও সি ফিশিং, র‍্যানকন-এর সিইও “তানভীর শাহরিয়ার রিমন” তার শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান এবং শিক্ষার্থীদের স্বপ্নের ক্যারিয়ার অর্জনের সঠিক দিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

পাশাপাশি এই বিরাট আয়োজনে সম্মানিত স্পিকার হিসেবে শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও ক্যারিয়ারের উন্নয়নের লক্ষ্যে বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড এর এজিএম, এবং কমপ্লায়েন্স ও এনফোর্সমেন্ট বিভাগের প্রধান আরিফ আহমেদ; বিএসআরএম গ্রুপ অফ কোম্পানিজ এর মানব সম্পদ বিভাগের শিক্ষা ও উন্নয়নের প্রধান মোঃ হাসনাইন আরাফাত; গ্লোবাল ইন্টারপ্রেনারশিপ নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর, বাংলাদেশ স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিএসডিআই) এবং ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক এর এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর জনাব কে এম হাসান রিপন।

বাংলাদেশ সফট স্কিলস ডেভেলপমেন্ট ক্লাবের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এবং অ্যাডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট রোটারেক্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ, রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ডি-৩২৮২, ওয়াহেদ মুরাদ; চট্টগ্রামের গভঃ সিটি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আবু নাসির; দ্যা ডেইলি স্টার এর চিফ বিজনেস অফিসার, এবং কিরন এর সিইও তাজদিন হাসান; এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্টগ্রাম এর এইচআর ও প্রশাসনের উপ-প্রধান (ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার) এমরানুল হক; এবং দ্যা পেনিনসুলা চিটাগাং- এর হেড অফ এইচআর ও এডমিন প্রতিক ভট্টাচার্য।

এছাড়াও আসাধারণ এই আয়োজনে সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন- ডেল্টা ইমিগ্রেশন এর সিইও মোহাম্মদ আলমগীর; বারকোড রেস্টুরেন্ট গ্রুপ এর প্রতিষ্ঠাতা মঞ্জুরুল হক; Pkaard এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা সানজিদা সুলতানা নিশি; নবিন আইটি লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর খান মোহাম্মদ ফোরকান; চট্টগ্রামের গভঃ সিটি কলেজের প্রিন্সিপাল অধ্যাপক ডাঃ সুদীপা দত্ত; চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি (CVASU)-এর প্রফেসর ডাঃ ওমর ফারুক মিয়াজী; ডি ইঞ্জিনিয়ারস ক্লাব (DEC) এর প্রতিষ্ঠাতা সোমেন কানুনগো; এবং ইকোভেশন বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা ও এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শানজিদুল আলম সেবন শানসহ আরও অনেকে।

দিনব্যপী এই চমৎকার আয়োজনে একাধিক সেমিনার এবং লার্নিং সেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমগ্র এই আয়োজনের টাইটেল স্পনসর হিসেবে ছিলেন ডেল্টা ইমিগ্রেশন এবং পাওয়ারড বাই স্পনসর হিসেবে ছিলেন দ্যা পেনিনসুলা চিটাগাং। পাশাপাশি লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ, এসএসবি লেদার, নবিন আইটি লিমিটেড, এইচ বি এভিয়েশন এন্ড টিউরিজম ইনস্টিটিউট, এবং এক্সপ্রেস ইন টাউন লিমিটেড এই অনুষ্ঠানের প্রাউড গোল্ড স্পন্সর হিসেবে সংগঠনটির সাথে যুক্ত ছিলেন।

এছাড়াও স্কিল ডেভেলপমেন্ট পার্টনার হিসেবে ছিলেন ক্রিয়েটিভ আইটি ইন্সটিটিউট, সার্ভিস পার্টনার হিসেবে ছিলেন টেকনিশিয়ান, মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলেন CTG 24, এবং ফটোগ্রাফি পার্টনার হিসেবে ছিলেন লাইট উইজার্ড। আর লোগো বোর্ড পার্টনার হিসেবে ছিলেন ডিফো, আমাদের সুইঁ-সুতা, বিসমিল্লাহ অটোমোবাইলস, এবং ডিয়ানা হোস্ট। পাশাপাশি ক্লাব পার্টনার হিসেবে যুক্ত ছিলেন ক্যারিয়ার ক্লাব-গভঃ সিটি কলেজ চট্টগ্রাম, ডিআইআইটি বিজনেস ক্লাব চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিএসডিআই), এবং গ্লোবাল ইন্টারপ্রেনারশিপ নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ।

অসাধারণ এই সামিটটি নিয়ে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রিয়াজ হোসেন জানান, “বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয়বারের মত ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট সফল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। সামিটে আগত সকল অংশগ্রহকারী ও সম্মানিত অতিথিদের এই আয়োজন সাফল্যমন্ডিত করার জন্য প্রানঢালা শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

সামিটে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন সেমিনার ও স্কিল ডেভেলপমেন্ট সেশন শিক্ষার্থীদের জন্য দক্ষতার পরিধি উন্মুক্ত করেছে। সামিটে আমাদের সার্বক্ষণিক সহায়তার জন্য সকল স্পন্সর ও পার্টনারদের অন্তরের অন্তস্থল থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। এই বছরেই বিভিন্ন জেলাতে আমরা ধারাবাহিকভাবে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগানো এই স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিটের আয়োজন অব্যহত রাখবো।”

এস. এ টিভি সমন্ধে

SATV (South Asian Television) is a privately owned ‘infotainment’ television channel in Bangladesh. It is the first ever station in Bangladesh using both HD and 3G Technology. The channel is owned by SA Group, one of the largest transportation and real estate groups of the country. SATV is the first channel to bring ‘Idol’ franchise in Bangladesh through Bangladeshi Idol.

যোগাযোগ

বাড়ী ৪৭, রাস্তা ১১৬,
গুলশান-১, ঢাকা-১২১২,
বাংলাদেশ।
ফোন: +৮৮ ০২ ৯৮৯৪৫০০
ফ্যাক্স: +৮৮ ০২ ৯৮৯৫২৩৪
ই-মেইল: info@satv.tv
ওয়েবসাইট: www.satv.tv

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত ২০১৩-২০২৩। বাড়ী ৪৭, রাস্তা ১১৬, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ। ফোন: +৮৮ ০২ ৯৮৯৪৫০০, ফ্যাক্স: +৮৮ ০২ ৯৮৯৫২৩৪

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

চট্টগ্রামে দ্বিতীয়বারের মত ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৩:৫৭:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

চট্রগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয়বারের মতো খুবই অসাধারণভাবে আয়োজিত হয়ে গেল “ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ চট্টগ্রাম বিভাগ”। যা সমগ্র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য “NUSDF Bangladesh” কর্তৃক সবচেয়ে বড় ও চিত্তাকর্ষক আয়োজন।

২৩ই ফেব্রুয়ারি ২০২৪,  চট্টগ্রামের খুলশীতে অবস্থিত চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি (CVASU)- এর বিরাট অডিটোরিয়ামে দিনব্যপী একটি জমজমাট অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আয়োজিত হয়ে গেলো “ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট ২০২৪ চট্টগ্রাম বিভাগ”। যা মূলত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ও জনপ্রিয় কর্পোরেট ব্যক্তিত্বদের এক অসাধারণ মিলনমেলা।

এই সামিটটি মূলত দক্ষতা অর্জনের প্রয়োজনীয়তা, গুরুত্ব এবং কর্পোরেট নেটওয়ার্কিংয়ের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয়৷ NUSDF Bangladesh এর এই জাতীয় পর্যায়ের আয়োজনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের বিশিষ্ট শিক্ষক, অধ্যক্ষ এবং বেশ কিছু সফল কর্পোরেট ব্যক্তিত্বরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। চট্রগ্রাম ও চট্টগ্রামের বাহিরের ৩০০ এর বেশি শিক্ষার্থী এই আনন্দ আয়োজনে অংশ নিয়েছিলেন।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত দিয়ে শুরু হওয়া এই জমজমাট আয়োজনে বিশেষ অতিথি ও মূল বক্তা হিসেবে দেশের খ্যাতনামা রিয়েল এস্টেট ও সি ফিশিং, র‍্যানকন-এর সিইও “তানভীর শাহরিয়ার রিমন” তার শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান এবং শিক্ষার্থীদের স্বপ্নের ক্যারিয়ার অর্জনের সঠিক দিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

পাশাপাশি এই বিরাট আয়োজনে সম্মানিত স্পিকার হিসেবে শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও ক্যারিয়ারের উন্নয়নের লক্ষ্যে বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড এর এজিএম, এবং কমপ্লায়েন্স ও এনফোর্সমেন্ট বিভাগের প্রধান আরিফ আহমেদ; বিএসআরএম গ্রুপ অফ কোম্পানিজ এর মানব সম্পদ বিভাগের শিক্ষা ও উন্নয়নের প্রধান মোঃ হাসনাইন আরাফাত; গ্লোবাল ইন্টারপ্রেনারশিপ নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর, বাংলাদেশ স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিএসডিআই) এবং ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক এর এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর জনাব কে এম হাসান রিপন।

বাংলাদেশ সফট স্কিলস ডেভেলপমেন্ট ক্লাবের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এবং অ্যাডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট রোটারেক্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ, রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ডি-৩২৮২, ওয়াহেদ মুরাদ; চট্টগ্রামের গভঃ সিটি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আবু নাসির; দ্যা ডেইলি স্টার এর চিফ বিজনেস অফিসার, এবং কিরন এর সিইও তাজদিন হাসান; এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্টগ্রাম এর এইচআর ও প্রশাসনের উপ-প্রধান (ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার) এমরানুল হক; এবং দ্যা পেনিনসুলা চিটাগাং- এর হেড অফ এইচআর ও এডমিন প্রতিক ভট্টাচার্য।

এছাড়াও আসাধারণ এই আয়োজনে সম্মানিত বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন- ডেল্টা ইমিগ্রেশন এর সিইও মোহাম্মদ আলমগীর; বারকোড রেস্টুরেন্ট গ্রুপ এর প্রতিষ্ঠাতা মঞ্জুরুল হক; Pkaard এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা সানজিদা সুলতানা নিশি; নবিন আইটি লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর খান মোহাম্মদ ফোরকান; চট্টগ্রামের গভঃ সিটি কলেজের প্রিন্সিপাল অধ্যাপক ডাঃ সুদীপা দত্ত; চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি (CVASU)-এর প্রফেসর ডাঃ ওমর ফারুক মিয়াজী; ডি ইঞ্জিনিয়ারস ক্লাব (DEC) এর প্রতিষ্ঠাতা সোমেন কানুনগো; এবং ইকোভেশন বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা ও এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শানজিদুল আলম সেবন শানসহ আরও অনেকে।

দিনব্যপী এই চমৎকার আয়োজনে একাধিক সেমিনার এবং লার্নিং সেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমগ্র এই আয়োজনের টাইটেল স্পনসর হিসেবে ছিলেন ডেল্টা ইমিগ্রেশন এবং পাওয়ারড বাই স্পনসর হিসেবে ছিলেন দ্যা পেনিনসুলা চিটাগাং। পাশাপাশি লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ, এসএসবি লেদার, নবিন আইটি লিমিটেড, এইচ বি এভিয়েশন এন্ড টিউরিজম ইনস্টিটিউট, এবং এক্সপ্রেস ইন টাউন লিমিটেড এই অনুষ্ঠানের প্রাউড গোল্ড স্পন্সর হিসেবে সংগঠনটির সাথে যুক্ত ছিলেন।

এছাড়াও স্কিল ডেভেলপমেন্ট পার্টনার হিসেবে ছিলেন ক্রিয়েটিভ আইটি ইন্সটিটিউট, সার্ভিস পার্টনার হিসেবে ছিলেন টেকনিশিয়ান, মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলেন CTG 24, এবং ফটোগ্রাফি পার্টনার হিসেবে ছিলেন লাইট উইজার্ড। আর লোগো বোর্ড পার্টনার হিসেবে ছিলেন ডিফো, আমাদের সুইঁ-সুতা, বিসমিল্লাহ অটোমোবাইলস, এবং ডিয়ানা হোস্ট। পাশাপাশি ক্লাব পার্টনার হিসেবে যুক্ত ছিলেন ক্যারিয়ার ক্লাব-গভঃ সিটি কলেজ চট্টগ্রাম, ডিআইআইটি বিজনেস ক্লাব চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিএসডিআই), এবং গ্লোবাল ইন্টারপ্রেনারশিপ নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ।

অসাধারণ এই সামিটটি নিয়ে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রিয়াজ হোসেন জানান, “বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয়বারের মত ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিট সফল আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে। সামিটে আগত সকল অংশগ্রহকারী ও সম্মানিত অতিথিদের এই আয়োজন সাফল্যমন্ডিত করার জন্য প্রানঢালা শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

সামিটে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন সেমিনার ও স্কিল ডেভেলপমেন্ট সেশন শিক্ষার্থীদের জন্য দক্ষতার পরিধি উন্মুক্ত করেছে। সামিটে আমাদের সার্বক্ষণিক সহায়তার জন্য সকল স্পন্সর ও পার্টনারদের অন্তরের অন্তস্থল থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। এই বছরেই বিভিন্ন জেলাতে আমরা ধারাবাহিকভাবে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগানো এই স্কিল ডেভেলপমেন্ট সামিটের আয়োজন অব্যহত রাখবো।”