কুরবানির পশুর বর্জ্য অপসরনে কাজ করছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের কর্মীরা

0

নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কুরবানির পশুর বর্জ্য অপসরনে কাজ করছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের কর্মীরা। দক্ষিণ সিটির মেয়র ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নুর তাপস বলেছেন, ঈদের পরদিন অনেকেও কুরবানি করায়, নতুন করে বর্জ্য দেখা যাচ্ছে। আর উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম দাবি করেছেন, কুরবানির প্রথম দিনের বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে।

রাজধানীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে চলছে কুরবানির পশুর বর্জ্য অপসরনের কাজ। সিটি কর্পোরেশনের নির্দিষ্ট স্থানের বাইরেও অনেকে বর্জ্য ফেলে রেখেছেন। তাও পরিষ্কার করতে দেখা গেছে সিটি কর্পোরেশনের কর্মীদের।
বিভিন্ন এলাকা থেকে এমন ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বর্জ্য নিয়ে আসা হচ্ছে ময়লা ফেলার ডাম্পিং এ।

২৪ ঘন্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণের ঘোষনা ছিলো দুই সিটি মেয়রের। তবে দক্ষিণ সিটির মেয়র বলছেন, ঈদের পরেরদিনেও কুরবানি হওয়ায়, কিছুটা সময় বেশী লাগবে। স্বীকার করেন, কিছু ওয়ার্ডে প্রচুর বর্জ্য পরে রয়েছে। শুক্রবার নতুন করে কুরবানি না দেয়ার আহবান তার।
সিংক: ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস,মেয়র, দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন
হাটের বর্জ্য নির্দিষ্ট সময়ে অপসরণ না করলে, ইজারাদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।

এদিকে বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম দাবি করেন, ঈদের দিনে উত্তর সিটির পশু কুরবানির শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে।

রাজধানীকে পরিচ্ছন্ন রাখতে আগামী বছর কোরবানির ঈদে সিটি করপোরেশনের নিদিষ্ট স্থানে পশু কোরবানি দিতে হবে বলেও জানান ডিএনসিসি মেয়র।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন