করোনা মোকাবিলায় চীন থেকে আসলো আরো ১০ হাজার টেস্টিং কিট ও পিপিই

0

করোনা মোকাবিলায় চীন থেকে আসলো আরো ১০ হাজার টেস্টিং কিট ও পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট- পিপিই, ১৫ হাজার মাস্ক এবং এক হাজার ইনফ্রারেড থার্মোমিটার। এটি মহান স্বাধীনতা দিবসের উপহার বলে মন্তব্য করে চীনের রাষ্ট্রদুত লী জিমিং জানান, বাংলাদেশ যেভাবে চীনের পাশে দাঁড়িয়েছে চীনও একইভাবে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। বিকেলে বিশেষ কার্গো বিমানে আনা সামগ্রীগুলো বাংলাদেশকে হস্তান্তর করে রাষ্ট্রদুত এসব জানান।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ থেকে অনেকটাই সেরে উঠেছে চীন। এবার রোগটির হুমকির মুখে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বেশির ভাগ রাষ্ট্র। করোনা মোকাবিলায় সফল হওয়া চীন তাই দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশকে কিছু সামগ্রী প্রদান করে। যা নিয়ে বিশেষ বিমান বিকাল সাড়ে ৪টায় অবতরন করে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে।

করোনা মোকাবিলায় চীনের দেওয়া সামগ্রিকে স্বাধীনতা দিবসের উপহার হিসেবে উল্লেখ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদুত। বলেন, হাসপাতাল তৈরীর প্রয়োজন পড়লেও কারিগরী সহায়তা দেবে তার দেশ।

সরঞ্জামগুলো গ্রহণ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, বাংলাদেশ যেভাবে সহায়তা পাঠিয়েছিল, চীন তা মনে রেখেছে।

এই কীটগুলো যথাযথ ব্যবহার হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান প্রথমেই চিকিৎসকদের বিষয়টিই বিবেচনায় রাখা হচ্ছে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন