করোনা উপসর্গ নিয়ে সারাদেশে ৮ জনের মৃত্যু

0

কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার, সাতক্ষীরা ও ঝিনাইদহে করোনা উপসর্গ নিয়ে আট’ জন মারা গেছে।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে তিনজন মারা গেছে। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ তিনজন মারা যান। এদের মধ্যে ২ জন মহিলা ও ১ জন পুরুষ।

ময়মনসিংহে জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টের মত করোনা উপসর্গ নিয়ে কমরেড আবুল হাসিম নামে এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। তারাকান্দা উপজেলার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা কমরেড আবুল হাসিম বেশকিছু দিন যাবত জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মৌলভীবাজারের রাজনগর ও কুলাউড়া উপজেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজনগর উপজেলার কামারচাক ইউনিয়নের প্রেম নগর গ্রামে সর্দি-জ্বর-কাশি ও স্বাসকষ্টসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে তাজুল উদ্দিনের মৃত্যু হয়েছে। অপর দিকে কুলাউড়া উপজেলা সদরের বিছরাকান্দি গ্রামের ফরহাদ মিয়া নামে এক বৃদ্ধ বাড়িতে মারা যান। করোনা উপসর্গ জ্বর-শাসকষ্টসহ নানা জটিলতায় ভূগছিলেন।

জ্বর ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। জ্বর ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার বিকাল ৪ টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি হন গোলাপী রায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোর সাড়ে ৫টায় দিকে তিনি মারা যান।

ঝিনাইদহে করোনা উপসর্গ নিয়ে মকছেদ আলী নামের এক আইনজীবির মৃত্যু হয়েছে। তিনি ঝিনাইদহ জেলা জজ আদালতের সিনিয়র আইনজীবী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট নিয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন