করোনা আতঙ্কে রাজধানী ঢাকার কাঁচাবাজার ক্রেতাশুণ্য

0

করোনা আতঙ্কে রাজধানী ঢাকার কাঁচাবাজার ক্রেতাশুণ্য। চালসহ প্রতিটি পণ্যের দামই কমছে। তবুও টানা ছুটিতে বেচাকেনা না থাকায়, হতাশ ব্যবসায়ীরা। বাজারে কাঁচা তরিতরকারি ছাড়া নতুন পণ্যের আমদানি কম।

করোনা আতঙ্কে রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলো এখন ক্রেতাশুন্য। বেচা কেনা নেই বল্লেই চলে। তবে পণ্যমূল্য কমেছে প্রতিটি ক্ষেত্রে। কদিন আগেও দেশী পেয়াঁজের কেজি ৬০ থেকে ৭০ টাকা ছিল; যা টানা ছুটিতে কমে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ২০০ টাকার আদা ও রসুন এখন ১৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। তারপরেও কেনার লোক নেই।

ডিমের হালি দু’দিন আগে ৩৫ টাকা ছিল। কমে এখন ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডালসহ সয়াবিন তেল লিটারে ১২০ টাকা থেকে নেমে বিক্রি হচ্ছে ১’শ টাকায়। বিভিন্ন প্রকার ডাল কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা কমেছে।

দু’দিনের ব্যবধানে চালের কেজি ১ থেকে ২ টাকা কমেছে। মিনিকেট বিক্রি হচ্ছে ৫৪ টাকা, নাজির শাইল ৬৫ টাকা আর মোটা চাল ৪০ টাকায়।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, করোনারে সংক্রমন ঠেকাতে টানা ১০ দিনের ছুটি কার্যকরের আগে, সবাই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনে মজুদ করায় এখন তেমন কেউ বাজারে আসছেন না। একারণে পণ্যমূল্য কমিয়েও ক্রেতাদের সারা মিলছে না।

কাঁচা তরিতরকারি ছাড়া বাজারে মুদি পণ্যের নতুন করে সরবরাহ বাড়েনি।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন