একের পর এক ট্রেন দুর্ঘটনা রেল লাইনের দুরাবস্থার কারনেই

0

একের পর এক ট্রেন দুর্ঘটনার জন্য রেল লাইনের দুরাবস্থাকেই দুষছেন রেলওয়ের সংশ্লিষ্টরা। তারা জানান, দুর্ঘটনা ও পুরনো লাইনের কারণে ট্রেনের গতি কমিয়ে দেয়ায়, সারাদেশে সিডিউলে কিছুটা সমস্যা চলছে। তবে দুর্ঘটনা ও সিডিউল বিপর্যয়ের কারণে অনেক যাত্রী রেল ভ্রমন থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। রেলমন্ত্রী অবশ্য বলছেন, পুরনো লাইনগুলো সংস্কার করে ট্রেন চলাচল নিরাপদ করতে মেগা প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

১২ নভেম্বর ব্রহ্মনবাড়িয়ার কসবার মন্দবাগ স্টেশনে আন্তঃনগর তূর্ণা নিশিথা ও উদয়নের সংঘর্ষে ১৭ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়। পরদিন সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় রংপুর এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনসহ ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এসময় চারটি বগিতে আগুণ ধরে যায়।

এর আগে ২৩ জুন মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপবন ট্রেনের ৫টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে পাশের খালে পড়ে যায়। এতে নারীসহ ৪জন নিহত ও শতাধিক যাত্রী আহত হন। দুই বছরে এমন আরো শতাধিক ছোট-বড় ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে।

পুরনো জরাজীর্ণ রেল লাইনের কারণেই একের পর এক ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

দুর্ঘটনা ও রেল লাইনের দুরাবস্থার কারণে ট্রেনের গতি কমানোয় সারাদেশে রেলওয়ের সিডিউলে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে বলেও মনে করেন রেল সংশ্লিষ্টরা।

ঘনঘন ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রাণ হানির ঘটনায় সারাদেশের মতো মৌলভীবাজারসহ সিলেট অঞ্চলের রেল যাত্রীদের মধ্যে আতংক ও উদ্বেগ বিরাজ করছে।

নিরাপদ ও আরামদায়ক রেল ভ্রমনের জন্য সরকারের নেয়া পরিকল্পনার কথা জানান রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন